এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় কংগ্রেস-তৃণমূল জোট নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় কংগ্রেস-তৃণমূল জোট নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস দল কোনো আসন সমঝোতায় যাচ্ছেনা। এবার আবারও এই কথা স্পষ্ট করলেন দলনেত্রী তথা পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  মুখ্যমন্ত্রীর দিল্লী সফরকালে এদিন কংগ্রেস দলের প্রাক্তন এবং বর্তমান সভাপতি সোনিয়া গান্ধী এবং রাহুল গান্ধীর সাথে বৈঠক ছিলো ।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

সূত্রের খবর অনুসারে , জানা গিয়েছে এদিনের বৈঠকের দুই দলের প্রধানের মধ্যে ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে ফ্রেডারেল ফ্রন্ট এবং অসমের এনআরসি ইস্যু নিয়ে আলোচনা হয়। তবে লোকসভা নির্বচনের আসন সমঝোতা নিয়ে কোনো আলোচনা হয়নি বলেই জানা গিয়েছে। বৈঠকের পর ১০ নং জনপথ রোড থেকে বেরিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী সাংবাদিকদের পরিষ্কার ভাষায় জানিয়েছেন যে, তাঁর মতে  ফেডারেল ফ্রন্টে সকল রাজনৈতিক দলই সম সর্যাদা সম্পন্ন তাই যে রাজ্যে যে দল শক্তিশালী সেখানে সেই দলের একক শক্তিতে নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করা উচিত।

আর এক্ষেত্রে পশ্চিমবঙ্গ থেকে এই রাজ্য থেকে জাতীয় কংগ্রেসের সাথে কোনোরকম আসন সমঝোতা হবেনা। তৃণমূল কংগ্রেস দল একক শক্তি হিসেবেই নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করবে। প্রসঙ্গত আগামী বছর দেশের সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্রের বর্তমান বিজেপি সরকারকে চুড়ান্ত ভাবে পরাজিত করার লক্ষ্যে দেশের সমস্ত বিজেপি বিরোধী আঞ্চলিক দলগুলিকে নিয়ে সম্মিলিত ভাবে ফ্রেডারেল ফ্রন্ট গঠনের কাজের নেতৃত্ব রয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

 তিনিই বিভিন্ন রাজ্যের বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির সঙ্গে প্রতিনিয়ত যোগাযোগ রেখে চলেছেন। কংগ্রেস দলের পক্ষ থেকে এই উদ্যোগকে সাধুবাদ দেওয়ার পাশাপাশি সকল দলকে একক ঐক্য গঠনের ক্ষেত্রে বেশ জোর দেওয়া হচ্ছে। তবে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের হাত শিবিরের সাথে তৃণমূল কংগ্রেস দলের আসন সমঝোতা নিয়ে যে ক্ষীণ সম্ভবনা ছিলো এদিন মুখ্যমন্ত্রীর স্পষ্ট ঘোষনায় নিঃসন্দেহেই সেই সম্ভবনায় জল পড়ে গেলো। উল্লেখ্য এই রাজ্যে কংগ্রেস দলের একটি অংশ চাইছিলো রাজ্যের শাসক দলের সাথে আসন সমঝোতা হোক । কিন্তু দলেরই অন্য অংশ জোটের বিপক্ষে।

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!