এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > সংখ্যালঘু ভোটেই কি লোকসভায় বাজিমাত করবে বিজেপি? জল্পনা বাড়ালেন সংখ্যালঘু নেতা

সংখ্যালঘু ভোটেই কি লোকসভায় বাজিমাত করবে বিজেপি? জল্পনা বাড়ালেন সংখ্যালঘু নেতা

২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনে ভোটব্যাঙ্কে জোয়ার আনতে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কেই টার্গেট করেছেন মোদীজি অমিত শাহরা। এতোদিন সংখ্যালঘু সম্প্রদায় বিরোধী খেতাব দিয়ে কেন্দ্রীয় এনডিএ সরকারের নামে অপপ্রচার চালিয়েছিলো যাঁরা তাদের সমস্ত মিথ্যে রটনার জবাব মিলবে আগামী লোকসভা ভোটে। আগামী বছরগুলোতে কেন্দ্রের কুর্সিতে মোদীজিরই হুকুম চলবে। এমনটাই দাবী করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মুখতার আব্বাস নাকভি। এদিন সংখ্যাললঘু ভোটের একটি পরিসংখ্যানও তুলে ধরলেন তিনি। জানালেন, ১৮-২০% ভোট এসেছিলো বিজেপি তরফে ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটে। এবার সে ভোটই দুইগুন হতে চলেছে। দেশের অনন্ত ৩০-৩৫% সংখ্যালঘু মানুষের ভোট বিজেপির ঝুলিতেই আসবে এবার। তবে কেন সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সিংহভাগ বিজেপির দিকে ঝুঁকবে তার সরল সমীকরণও ব্যাখ্যা করলেন এদিন তিনি।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে


যুক্তিতে তিনি জানালেন যে, বিরোধী বিজেপি সম্পর্কে যে কুৎসা রটিয়েছিলো তা দূর করা সম্ভব হয়েছে  বিগত চার বছরে। তেমন বড় কোনো দাঙ্গা-হাঙ্গামাও হয়নি মোদীজির আমলে। বিরোধীরা যে বিজেপি সরকারের নামে অপপ্রচার চালিয়েছিলো সেটাই একরকম প্রমাণ হয়ে গেছে লোকসভা ভোটের আগেই। দেশকে বর্তমানে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা থেকে মুক্ত করা গেছে। জঙ্গি এবং সন্ত্রাসমূলক কর্মসূচির নজির দেখা যায়না বললেই চলে। ইউপিএ আমলে ৫৩০ জন মুসলিমকে জেলবন্দি করা হয়েছিলো। কিন্তু বর্তমান মোদীসরকারের আমলে সেই সংখ্যাটার জায়গায় রয়েছে শূন্যস্থান। সেই জেলবন্দিদের ৯০% দেরই মুক্তি দেওয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়েরও সমস্যাগুলোতে বিশেষ নজর দিয়েছেন মোদীজি কেন্দ্রের ক্ষমতায় এসেই। ক্রমশ অবস্থার উন্নতি হচ্ছে তাঁদের। বিজেপি আর উন্নয়ন একই মুদ্রার যে এপিঠ আর ওপিঠ এটা বুঝতে আর বাকি নেই সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষগুলোর। এসবের ভিত্তিতে বলাই যায়,২০১৯ সালের লোকসভা ভোটে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের এক বড় অংশের থেকে বিজেপি ভোট পাবে। তাঁরাই জবাব দেবে এতোদিনের জমানো বিরোধীদের বিজেপি সংক্রান্ত অপপ্রচারের। সমস্ত কুৎসাকে ধুলিসাৎ করে কেন্দ্রে ফের উড়বে গেরুয়া ঝান্ডা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!