এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > লোকসভা ও বিধানসভা নির্বাচন একসাথে করা নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত জানালেন মুখ্য নির্বাচনী কমিশনার

লোকসভা ও বিধানসভা নির্বাচন একসাথে করা নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত জানালেন মুখ্য নির্বাচনী কমিশনার

আগামী বছর লোকসভা এবং বিধানসভা ভোট একসাথে হওয়া নিয়ে জল্পনা কিছু কম নেই সর্ব ভারতীয় রাজনৈতিক স্তরে। তবে সেই জল্পনার গোড়াতেই আঘাত করলেন এদিন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার ও পি রাওয়াত। সাফ কথায় জানিয়ে দিলেন, ‘আগামী বছর লোকসভা এবং কয়েকটি রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন একসাথে হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।’ সঙ্গে এটাও পরিস্কার জানিয়ে দিলেন,মধ্যপ্রদেশ,ছত্তিশগড় এবং রাজস্থানের বিধানসভা নির্বাচন শেষ হবে ২০১৯ সালের ৫,৭ এবং ২০ জানুয়ারী। সঙ্গে এটাও উল্লেখ করলেন, একসঙ্গে এতোগুলো নির্বাচন করতে গেলে প্রয়োজন নির্দিষ্ট আইনি পরিকাঠামোর।

আইনপ্রণেতাদের এ ব্যাপারে আইন তৈরি করতে ন্যূনতম ১ বছর সময় লাগবে। আইন তৈরি হলেই নির্বাচন কমিশন এ ব্যাপার সম্পন্ন করতে উদ্যোগ নেবেন। এছাড়া জানান যে, যে কোনো লোকসভা নির্বাচনের মোটামুটি ১৪ মাস আগে থেকেই প্রস্তুতি পর্ব শুরু করতে হয়। মাত্র ৪০০ জন কর্মী নিয়ে নির্বাচন কমিশন এই কাজ শুরু করে। তবে ভোটটি যখন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের জন্য,তখন সারাদেশের এক কোটিরও বেশি মানুষকে এই ভোটের কাজে নিযুক্ত করতে হয়।

সম্প্রতি কয়েক সপ্তাহ ধরেই বিভিন্ন রাজনৈতিকমহল দাবী করতে শুরু করেছে,চলতি বছরে মধ্যপ্রদেশ,ছত্তিশগড় রাজস্থান এবং মিজোরামের বিধানসভা নির্বাচন স্থগিত করা হতে পারে।  আগামী বছরের এপ্রিল-মে নাগাদ লোকসভা ভোট হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে। সে নির্বাচনের সঙ্গেই নাকি বিধানসভার নির্বাচনগুলো সম্পন্ন করা হবে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রব্লেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

কিছুদিন আগে জাতীয় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ লোকসভা এবং বিধানসভা ভোট একসঙ্গে করা নিয়ে ‘বিধিসম্মত’ এবং ‘প্রকাশ্য’ বিতর্কেরও আহ্বান জানিয়েছিলেন। এর জেরেই জল্পনা আরো তীব্র হয়েছিল। এই জল্পনা দমন করতেই পদক্ষেপ নিতে দেখা গেল মুখ্য নির্বাচন কমিশনারকে। সাফ কথায় জানিয়ে দিলেন,এরকম কোনো সম্ভাবনা নেই।

 

Top
error: Content is protected !!