এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > পঞ্চায়েতে ‘সন্ত্রাসকারী’ তৃণমূলনেতাদের বাংলা ছাড়া করার হুমকি লকেট চট্টোপাধ্যায়ের

পঞ্চায়েতে ‘সন্ত্রাসকারী’ তৃণমূলনেতাদের বাংলা ছাড়া করার হুমকি লকেট চট্টোপাধ্যায়ের

নয়াগ্রামের চৌকিপাথরাতে আসন্ন নির্বাচন উপলক্ষ্যে দলীয় প্রচারকার্যে জনসভা করলেন বিজেপি মহিলা মোর্চার রাজ্য সভানেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়। এদিনের জনসভা থেকে এলাকার তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক দুলাল মুর্মুকে একরকম হুমকি দিয়েই রাজ্য ছাড়া করবেন জানালেন তিনি। রাজ্যের শাসক দলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগ এনে লকেট দেবী নিজের ভাষণে বলেন, পঞ্চায়েতে দুলাল মুর্মু সবাইকে হুমকি দিচ্ছে, সন্ত্রাস করবে বলছে। মনে রাখা উচিত, ওঁকে এখানেই থাকতে হবে, সরকার কিন্তু পরিবর্তন হয়ে যাবে। যদি বিজেপি সরকার আসে, তাহলে এই ধরনের লোকগুলোকে পশ্চিমবঙ্গ থেকে একদম তাড়িয়ে দিতে হবে। একই সাথে তৃণমূল কংগ্রেস সরকারকে বেইমানির সরকার বলে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, মানুষের সঙ্গে এত বেইমানি ইতিহাসে কেউ করেনি। কেন্দ্রীয় প্রকল্পের টাকা আসছে – মুখ্যমন্ত্রী নিজের নামে করে দিচ্ছেন। এত বেইমানির সরকার বেশিদিন টিকতে পারে না।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

পঞ্চায়েত নির্বাচনের মনোনয়ন পর্বে রাজ্যের শাসক দল সন্ত্রাসের পরিবেশ সৃষ্টি করেছে অভিযোগ এনে লকেট চট্টোপাধ্যায় দলের মহিলা কর্মী-সমর্থকদের যে কোনো রকম কঠিন পরিস্থিতিতে রুখে দাঁড়ানোর আবেদন জানান। তিনি বলেন, শান্তিপুরের এক মহিলাকে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা ধর্ষণ করেছে। ওই মহিলা ছ’মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। বিজেপি-র এক প্রার্থীর আত্মীয়। তাই তাঁকে ধর্ষণ করা হয়েছে। এই দুষ্কৃতীরা মরলে নরকেও ঠাঁই পাবে না। এদিনের সভা থেকেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা করে লকেটদেবী বলেন, অন্য কোনও দলকে নমিনেশন তুলতে দেওয়া হচ্ছিল না। একটা বল নিয়ে একজন ফুটবলারই যদি এদিক-ওদিক গোল দিয়ে বেরায়, তাহলে সেটাকে কি খেলা বলে? কার বিরুদ্ধে গোল দিল? মুখ্যমন্ত্রীর যদি বুকের পাটা থাকত, ভোটটা করিয়ে দেখাতে পারতেন। সবাইকে নমিনেশন জমা করার সুযোগ দিয়ে যদি ভোটটা করাত তাহলে বুঝতাম তৃণমূল সরকারের বুকের পাটা আছে, মুখ্যমন্ত্রীর বুকের পাটা আছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!