এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > নোয়াপাড়ায় বাম-কংগ্রেস জোট প্রার্থী নিয়ে বড় তথ্য ফাঁস সিপিএম নেতার

নোয়াপাড়ায় বাম-কংগ্রেস জোট প্রার্থী নিয়ে বড় তথ্য ফাঁস সিপিএম নেতার

গত ২০১৬ বিধানসভা নির্বাচনে গোটা রাজ্যের মত নোয়াপাড়াতেও বামফ্রন্ট ও কংগ্রেসের আসন সমঝোতা হয়। সেখানে বামেদের সমর্থনে প্রার্থী হন কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা মধুসূদন ঘোষ। কিন্তু মাত্র কয়েকমাস তিনি লিভার-ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ায় নোয়াপাড়াতে উপনির্বাচন আসন্ন। সেখানে এবার আলাদা আলাদা করে প্রার্থী দিয়েছে বামফ্রন্ট ও কংগ্রেস। ২০১৬ এর মত হয় নি কোনো আসন সমঝোতা। আর এতদিন এই জোট ভেঙে যাওয়ার ডে কার্যত কংগ্রেস চাপিয়ে এসেছে বামফ্রন্টের উপর। এমনকি বামফ্রন্টের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছে যে রাজ্যের শাসকদলকে বাড়তি সুবিধা পাইয়ে দিতেই বামফ্রন্ট এই জোট ভেঙেছে।
গতকাল এক সাংবাদিক বৈঠকে সিপিএম নেতা তড়িৎ তোপদার ‘খোলসা’ করেন জোট ভাঙার ব্যাপারটা। তিনি জানান, ২০১৬ সালে কংগ্রেস প্রার্থী সিপিএম-কংগ্রেস জোটে নোয়াপাড়ায় জয়ী হয়েছিলেন। এবার কংগ্রেস প্রার্থী না দিয়ে আমাদের সমর্থন করতে পারত। এমনকী, কংগ্রেসকে বলা হয়েছিল, যদি তারা এবারও প্রার্থী দেয় তাহলে আমরা প্রার্থী দেব না। কিন্তু জেতার মত গ্রহনযোগ্য মুখ দিতে হবে, আর তাই আমরাই নোয়াপাড়ার জন্য দীপা দাশমুন্সি অথবা সোমেন মিত্রর নাম প্রস্তাব করেছিলাম। কিন্তু, ওরা সেই প্রস্তার গ্রহণ করেনি। তবে, তাতে কিছু যায় আসে না। কারণ, সিপিএমের জন্যই কংগ্রেস প্রার্থীরা ওখানে জয়ী হয়েছিল। তাই জয় আমাদের নিশ্চিত।

Top
error: Content is protected !!