এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > নাগরিকপঞ্জী ইস্যুতে বিজেপির সঙ্গে এক বন্ধনীতে তৃণমূলকেও বসাচ্ছে বাম-কং? বাড়ছে জল্পনা

নাগরিকপঞ্জী ইস্যুতে বিজেপির সঙ্গে এক বন্ধনীতে তৃণমূলকেও বসাচ্ছে বাম-কং? বাড়ছে জল্পনা

বৃহস্পতিবার কলকাতায় অসম ইস্যুতে নাগরিক পঞ্জিকরনের বিরুদ্ধে যৌথভাবে গন কনভেনশনের আয়োজন করে একাধিক সংগঠন। যেখানে বিজেপি বাদে সব রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রন জানানো হয়েছিল। তবে সিপিএম, আরএসপি, কংগ্রেসের মত দলগুলি এখানে উপস্থিত হলেও তৃণমূলের সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী ও রেজ্জাক মোল্লা উপস্থিত হওয়ার কথা বলেও উপস্থিত হননি।

এদিন এই মঞ্চে বক্তব্য রাখেন সিপিএমের সুজন চক্রবর্তী থেকে আরএসপির মনোজ ভট্টাচার্য। সিপিআইএমের তপন গঙ্গোপাধ্যায় থেকে কংগ্রেসের ওমপ্রকাশ মিশ্র। প্রত্যেকেই এদিন এই নাগরিকপঞ্জীর বিরুদ্ধে জাতি, ধর্ম, বর্ন নির্বিশেষে সকলকে প্রতিবাদে নামার আহ্বান জানান। এই সবই যে রাজনীতির জন্যই হচ্ছে এদিন সে কথাও উল্লেখ করেন বক্তারা।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

বিজেপি এবং কেন্দ্রের সরকারের এই কর্মকান্ডের পেছনে ধর্মান্ধতাকে হাতিয়ার করে রাজনীতিই প্রাধান্য পাচ্ছে বলে দাবি উপস্থিত সব দলেরই সদস্যদের। এদিকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এনআরসি ইস্যুতে কেন্দ্রের সাথে যুদ্ধে গেলেও এদিন তাঁকেও কটাক্ষ করেন বামেদের সুজন চক্রবর্তী ও কংগ্রেসের ওমপ্রকাশ মিশ্ররা। এদিন তাঁরা বলেন, “এরাজ্যের কেউ কেউ অসমের ৪০ লাখ মানুষকে আশ্রয় দেওয়া বা আবার কখনও গৃহযুদ্ধের পরিস্থিতির কথা বলে প্রতিবাদের আসরে নেমে ঘোলা জলে মাছ ধরতে চাইছে। বিজেপির সঙ্গে তাই এদের কোনো ফারাক নেই”।

তাঁদের আরও অভিযোগ, এই কঠিন সময়ে যখন দ্বায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করা উচিত তখন উস্কানিমূলক কথার মাধ্যমে বাজার গরম করা হচ্ছে। রাজনৈতিক মহলের মতে, এনআরসি ইস্যুতে এরাজ্যে বিজেপির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে নিজেদের হাতেই ব্যাটন রাখতে চায় বাম-কংগ্রেস। আর তাই এই ইস্যুতে বিজেপির পাশাপাশি শাসকদল তৃনমূল কংগ্রেস ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও কটাক্ষ করতে ছাড়লেন না সুজন চক্রবর্তী, ওমপ্রকাশ মিশ্ররা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!