এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বাম মিছিলে গেরুয়া পতাকা কি নিচুতলায় জোটেরই ইঙ্গিত দিচ্ছে?

বাম মিছিলে গেরুয়া পতাকা কি নিচুতলায় জোটেরই ইঙ্গিত দিচ্ছে?

“দলের কোনো সদস্য বা নেতা বিজেপি বা তৃণমূলের সঙ্গে সমঝোতায় যাওয়ার চেষ্টা করলে তাঁকে বহিষ্কার করা হবে।” এমনটাই মন্তব্য ছিল এক সাংবাদিক সম্মেলন বামফ্রন্টের বরিষ্ঠ নেতা সূর্যকান্ত মিশ্রের। তৃণমূলের তরফ থেকে জানা গেছে  পঞ্চায়েত নির্বাচন পর্বে নাকি ‘বাম-রাম’ এক হয়ে গেছে অর্থাৎ রাজ্যের দুই বিরোধী দল বিজেপি ও সিপিএম নাকি জোটে বেধেছে।আর এটা বামেদের শীর্ষ নেতাদের ইশারাতেই নাকি হচ্ছে। এ নজির মিলেছে নদিয়া,মুর্শিদাবাদ এমনকি উওরবঙ্গের বিভিন্ন জেলাতেই। তবে এদিন শাসকদলের এ দাবী অস্বীকার করেন সূর্যকান্তবাবু। জানান প্রধান শত্রুই নাকি বিজেপি আর তৃণমূলর সাথে হাত মেলানোর প্রশ্নই নাকি অযৌক্তিক।

রাজনৈতিক শিবিরের একাংশ দাবী করেছেন,রানাঘাট দক্ষিণের সিপিএম বিধায়ক রমা বিশ্বাসে ভোট প্রচার মিছিলে নাকি বিজেপির পতাকা দেখা গেছে। এই কথার পরিপ্রেক্ষিত সূর্যকান্তবাবু জানান যে,ওটা নাকি তৃণমূলের হামলার দরুণ একটি গ্রামের দলমত নির্বিশেষ একটি প্রতিবাদ মিছিল ছিল। দাবী ছিল বিধায়ককে ঘটনাস্থলে থাকতে হবে।তাই বিধায়ক সেখানে যান। ‘দলমত নির্বিশেষ ‘ শব্দ ব্যবহার করলেও তিনি অস্বীকার করেননি ওদিন লাল পতাকা এবং পদ্ম ঝান্ডা একই হাওয়ায় উড়ছিলো। সিপিএম এর রাজ্য সম্পাদক একথাও জানান যে যখন মানুষ আক্রান্ত হয় কিংবা ঘরে ঘরে আগুন লাগপ তখন সর্বাগ্রে প্রয়োজন ঘরে আগুন নেভানো। সেখানে বিরোধী দল রয়েছে বলে না যাওয়ার ছুতো দেওয়া কাম্য নয়।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

স্পষ্ট কথায় জানান তিনি, ”বিজেপি আমাদের প্রধান শত্রু। আর তৃণমূল সরকারের আমলেই এ রাজ্যে বিজেপি-র সবচেয়ে বাড়বাড়ন্ত হচ্ছে। আরএসএস-এর শাখা ১১ গুণ হয়ে গিয়েছে। তৃণমূলই আসলে চাইছে, এ রাজ্যে বিজেপি প্রধান বিরোধী শক্তি হিসেবে উঠে আসুক। কারণ রাজ্যে এখন প্রতিযোগিতামূলক সাম্প্রদায়িকতা চলছে।” রাজ্য সম্পাদকের কথায়, ”বিজেপি-র সঙ্গে হাত মিলিয়ে আমরা তৃণমূলকে হারাব বা তৃণমূলের সঙ্গে হাত মিলিয়ে বিজেপিকে রুখব, এর কোনওটাই হবে না। আমাদের দলের কেউ যদি এ সবের মধ্যে জড়িত থাকেন, যদি যোগাযোগ রাখার বা সমঝোতা করার প্রমাণ মেলে, তা হলে দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী আমরা তাঁকে বহিষ্কার করব।” তবে লালশিবির ও গেরুয়া শিবিরের এর সমঝোতার খবর পাওয়া গেছে রাজ্যের ২ টি এলাকা থেকে। এ ব্যাপারে কঠিন পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানান এদিন তিনি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!