এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বিজেপিকে বড় ধাক্কা দিয়ে দল ছাড়লেন বিধায়ক, শীঘ্রই যোগ দিতে চলেছেন কংগ্রসে

বিজেপিকে বড় ধাক্কা দিয়ে দল ছাড়লেন বিধায়ক, শীঘ্রই যোগ দিতে চলেছেন কংগ্রসে

লোকসভা ভোটের আগেই মোদী-বিরোধী সুর বিজেপি বিধায়কের গলায়। জোড় ধাক্কা বিজেপি শিবিরে! মেক ইন ইন্ডিয়া,ম্যাগনেটিক মহারাষ্ট্র ও স্কিল ইন্ডিয়ার মতো প্রকল্পগুলোর মাধ্যমে মহারাষ্ট্র এবং দেশের যুব সম্প্রদায়ের চাকরির সুযোগ করে দিতে কার্যত ব্যর্থ নরেন্দ্র মোদী। এছাড়া রাফায়েল যুদ্ধবিমান নিয়ে দুর্নীতিগ্রস্থ বিজেপি সরকার-এমনটাই অভিযোগ তুলে দল ছাড়ার কথা জানিয়ে দিলেন মহারাষ্ট্রের বিধায়ক আশিষ দেশমুখ। তাঁর বিজেপি থেকে ইস্তফা দেওয়ার খবর প্রকাশ্যে আসতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে দলীয় অন্দরে।

দলত্যাগের সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর কংগ্রেসে যোগ দিতে চলেছেন অাশিষ দেশমুখ। এমনটাই জল্পনা। কারণ ইতিমধ্যে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর সঙ্গে দেখাও করে এসেছেন তিনি। এরপর গতকাল ইস্তফা দেন বিজেপি বিধায়কের পদ থেকে। মহারাষ্ট্র বিধানসভা স্পিকারের কাছে ইস্তফাটি পাঠিয়ে দেন। এরপর সাংবাদিক সম্মেলনে জানান নিজের দলছাড়ার কারণটি। সাফ কথায় তিনি জানিয়ে দেন,রাফায়েল যুদ্ধ বিমান নিয়ে বিজেপির দুর্নীতিমূলক কর্মকান্ডের জন্য তিনি দলে থাকতে রাজি নন।

প্রসঙ্গত,অাশিষ দেশমুখ কাটোল বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক ছিলেন। আগে তিনি কংগ্রেসে ছিলেন। বছর চারেক আগে মহারাষ্ট্র বিধানসভা ভোটের আগে কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে এসেছিলেন। ফের আবার পুরানো দলে ফিরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত তাঁর। তবে এখনই বিজেপি বিধায়কের ইস্তফা দল গ্রহণ করবে কিনা তা নিয়ে যথেষ্ট সংশয় রয়েছে। কারণ সামনেই ২০১৯ এ মহারাষ্ট্র বিধানসভা ভোট। তারপর লোকসভা ভোটের মহাযুদ্ধ রয়েছে। এর আগে আর কোনো উপনির্বাচন চায় না বিজেপি। এমনটাই জানা যাচ্ছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

উল্লেখ্য,রাফায়েল দুর্নীতির অভিযোগ তুলে জাতীয় কংগ্রেস সুপ্রিমো রাহুল গান্ধী লোকসভার বাদল অধিবেশন কড়ায় ভাষায় আক্রমণ শানিয়েছিলেন মোদীজিকে। এবার একই দুর্নীতিতে একজন বিজেপি বিধায়কই বিজেপির বিরুদ্ধে যাওয়ায় কংগ্রেসের পাল্লা ভারী হল। এই ইস্যুকে হাতিয়ার বানিয়ে বিজেপি বিরুদ্ধে আক্রমণ শানাবে রাহুল-সোনিয়া গান্ধীরা। এমনিতেই লোকসভা ভোটের আগে মেদীজির ভাবমূর্তি নষ্ট করার একটা সুযোগও হাতছাড়া করে না তাঁরা। তার উপর মেঘ না চাইতেই জল পাওয়ার মতো বিজেপির সমালোচনায় মুখর হয়ে এক বিজেপি বিধায়কই কংগ্রেসে যুক্ত হচ্ছেন। এটাকেই ভোটের আগাম পাওয়া হিসাবে ধরে নিচ্ছে কংগ্রেস। উদ্বেগে মোদীজি-অমিত শাহরা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!