এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > দলে দলে সংখ্যালঘুরা বিজেপি ছেড়ে ফের শাসকশিবিরে, বড়সড় ধাক্কা গেরুয়া বাহিনীর

দলে দলে সংখ্যালঘুরা বিজেপি ছেড়ে ফের শাসকশিবিরে, বড়সড় ধাক্কা গেরুয়া বাহিনীর

CAA নিয়ে গোটা দেশ জুড়ে বিরোধীরা স্রাব হয়েছে। চলছে বিক্ষোভ প্রদর্শনও। যা নিয়েই বেজায় অস্বস্তিতে পড়েছে গেরুয়া শিবির , আর এর মধ্যেই বিজেপিকে বড়সড় ধাক্কা দিয়ে দল ছাড়ছেন একের পর এক নেতা কর্মীরা।

তাদের দল ছাড়ার কারণ হিসাবে জানানো হচ্ছে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে তারা ক্ষুব্ধ তাই দল ছেড়ে দিচ্ছেন। বাংলাতেও এই দলত্যাগ জারি রয়েছে এবার সামনে এলো চাঞ্চল্যকর খবর। বিজেপির হাতছাড়া হওয়া মধ্যপ্রদেশে এবার ‘সিএএ’,’এনআরসি’ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ইস্যুতে গোটা দেশ জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। এই নিয়ে বিভিন্ন রাজ্যে অস্বস্তির মুখে পড়েছে বিজেপি। অসমের মতো একাধিক বিজেপি শাসিত রাজ্যে সরকারের তরফেও বেশ কয়েকজন বিজেপির হেডকোয়ার্টারে বিষয়টি নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে। এরইমধ্যে গতবছরই বিজেপির হাতছাড়া হওয়া মধ্যপ্রদেশে বয়ে যাচ্ছে ভাঙনের চোরাস্রোত। আর ভাঙনের কারণ ‘সিএএ’, ‘এনআরসি’।

সূত্রের খবর, মধ্যপ্রদেশ বিজেপিতে এই মুহূর্তে সংখ্যালঘুদের একটা বড় অংশ দল ছাড়তে চলেছেন। প্রসঙ্গত রাজ্যের সংখ্যালঘু সেলের ভাইস প্রেসিডেন্ট আদিল খান নাগরিকত্ব ইস্যু নিয়ে মুখ খুলেই দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন। তাছাড়া মাধ্যপ্রেদেশে সংখ্যালঘুরাও নাকি দলে দলে গেরুয়া শিবির ত্যাগ করছেন। কারণ একটাই তা হলো ‘সিএএ’, ‘এনআরসি’।

যদিও বিজেপির তরফে দাবি করা হয়েছে , আগে অনেকে দল ছেড়েছেন ভুল বুঝে কিন্তু এখন আর কেউ দল ছাড়বেন না। সবাই বিরোধীদের চক্রান্ত বুঝে গেছেন। আর তাছাড়া আগে যা ভাঙ্গন হয়েছে সেই ভাঙনের নেপথ্যে রয়েছে কংগ্রেস ও বামেরা তারাই ভুল বুঝিয়ে নিয়ে গেছে। আর তারাই মানুষজকে ভুল বোঝাচ্ছেন। তবে বিজেপিও পাল্টা মাঠে নামছেন। আবার সব ভুল ভেঙে যাবে আর মানুষ তাদের পাশে এসে দাঁড়াবেন।

আপনার মতামত জানান -
Top