এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ‘কুসংস্কারাচ্ছন্ন’ কুমারস্বামী সংখ্যাগরিষ্ঠাতার অঙ্ক মেলাতে শহর ঘুরে মন্দিরে মন্দিরে পুজো দিলেন

‘কুসংস্কারাচ্ছন্ন’ কুমারস্বামী সংখ্যাগরিষ্ঠাতার অঙ্ক মেলাতে শহর ঘুরে মন্দিরে মন্দিরে পুজো দিলেন

কংগ্রস-জেডিএস জোট থেকে নতুন মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব আসার পর থেকেই কুমারস্বামীর কপালে বলিরেখা দেখা যাচ্ছে। আগামী ৫ বছর কর্নাটকের রাশ কুমারস্বামীর হাতে থাকবে কিনা তা নিয়ে ঘোর চিন্তায় কুৃমারস্বামীর পরিবারও। ক্ষমতা ভোগদখলের জন্যে নয়,কর্নাটকের মানুষের হিত করতেই তিনি দায়িত্ব নিয়েছেন। এমনটাই জানালেন রাজ্যের ২৪ তম মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামী। এর পাশাপাশি তিনি এটাও জানান ” মুখ্যমন্ত্রী পদ আমার জন্য অনিবার্য নয়। তবুও এই পদ গ্রহণে রাজি হয়েছি কারণ কংগ্রেসের বহু নেতা এই পদে বসার জন্য বারবার অনুরোধ করেছেন।’

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

জানা যাচ্ছে,ইতিমধ্যে রাজ্যের কয়েকটি প্রসিদ্ধ মন্দিরে পুজো দিতে দেখা গেছে কুমারস্বামীকে। মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেওয়ার পর থেকেই এমন নজির পাওয়া যাচ্ছে। এদিন সকালেও একটা মঠ পরিদর্শনে সকাল ৮.৩০ এ আসার কথা ছিল মন্ত্রীর। সেইমতোই কড়া নিরাপত্তা নিতে নিয়ে প্রস্তুত ছিল পুলিশ প্রশাসন ও সংবাদমাধ্যম।এতে চরম ভোগান্তির শিকার হল নিয়মিত আসা দর্শনার্থীরা। তীব্র রোদে অনেকক্ষণ অপেক্ষা করানোর পর দুপুর ১ টা নাগাধ তাকে আসতে দেখা গেলো। এতে কিছু মানুষ অসন্তুষ্ট হয়ে কুমারস্বামীকে ‘কুসংস্কারাচ্ছন্ন’ বলেছেন। তবে সে কথাকে তিনি তেমন বেশি আমল দিলেন না। জানালেন তিনি গ্রহ এবং বাস্তুশাস্ত্র মেনেই চলাফেরা করেন। জানা গেছে, এই মুহূর্তে দুজন বাস্তুশাস্ত্রবিশারদের সঙ্গেও সম্পর্ক রেখে চলেছেন তিনি।

রাজনৈতিক সূত্রের খবর থেকে আরো জানা গেছে যে বেঙ্গালুরুর জে পি নগরের আবাসস্থল থেকেই সরকারি কাজ চালাবেন তিনি। তারপর মুখ্যসচিবের বাড়ি থেকে সরকার চালানোর ইচ্ছে তাঁর। এই মূহূর্তে সরকারি আবাসন ‘অনুগ্রহ’ নিতে নারাজ তিনি। কুমারস্বামীর ঘনিষ্ট মহলের দাবী, সরকারি বাংলোয় কোনো বাস্তুদোষ খুঁজে পেয়েছেন তিনি তাই তাঁর এমন সিদ্ধান্ত। সরকারি ওই আবাসনটিতে যেই নাকি থাকতে এসেছেন, তিনি নাকি নিজেট মেয়াদ পূরণ করতে পারেননি। আপতত এই সব খবরই সরগরম করে রেখেছে কর্নাটকের রাজনীতিকে।

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!