এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কোলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি নিয়ে অবশেষে বড়সড় সিদ্ধান্ত

কোলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি নিয়ে অবশেষে বড়সড় সিদ্ধান্ত

কোলকাতা হাইকোর্টের নয়া বিচারপতির দায়িত্বে আসতে চলেছেন দেবাশিস করগুপ্ত। প্রধান বিচারপতি জ্যোতির্ময় ভট্টাচার্যের অবসর গ্রহনের পর তিনি মাস খানেক অস্থায়ী পদে বহাল ছিলেন। এবার পাকাপাকিভাবে তিনি প্রধান বিচারপতির কুর্সিতে বসবেন। এ ব্যাপারের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হয় সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ জন বিচারপতির সম্মতি নিয়েই,এমনটাই জানা গিয়েছে আদালত সূত্রের খবরে।

আগামী ডিসেম্বরে প্রধান বিচারপতি হিসাবে দেবাশিষ করগুপ্তের চাকরির মেয়াদ শেষ হবে। এই প্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্টের কলেজিয়াম জানিয়েছে,কমপক্ষে আর ১ বছর কর্মজীবন বাকি রয়েছে,এমন বিচারপতিকেই প্রধান বিচারপতির পদে নিয়োগ করার নিয়ম রয়েছে। তাছাড়া হাইকোর্টের বর্ষীয়ান বিচারপতি হিসাবে করগুপ্তের দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতা রয়েছে। এই যুক্তিকে সামনে রেখেই হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির দায়িত্বভার তাকে সপে দেওয়া হচ্ছে। গত ১১ ই অক্টোবর নাগাদ দেশের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ সহ সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ বিচারপতি করগুপ্তকে কোলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি পদে নিয়োগের প্রস্তাব দেন। সেই প্রস্তাবেই সীলমোহর পড়ল এদিন।

উল্লেখ্য, দেবাশিস বাবু ১৯৮২ সাল থেকে কোলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবী হিসাবে কর্মজীবন শুরু করেছিলেন। সাংবিধানিক এবং দেওয়ানি মামলার আইনজীবী হিসাবে নিজেকে সফলভাবে প্রমাণ করেছেন তিনি। কোলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি হিসাবে প্রথম দায়িত্বভার গ্রহন করেন ২২ জুন,২০০৬। এরপর হাইকোর্টের আগামী প্রধান বিচারপতি হিসাবে তাঁর নাম মনোনীত হল।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

উল্লেখ্য,বর্তমানে বিচারপতি করগুপ্তের এজলাসে একাধিক গুরুত্বপূর্ন মামলা রয়েছে। রাজ্যের সরকারি কর্মচারীদের ডিএ মামলা তাঁর নেতৃত্বেই সম্প্রতি পর্যবেক্ষণে রয়েছে। এমনকী,সরকারি চিকিৎসকদের উচ্চ শিক্ষার জন্য রাজ্যসরকারের সম্মতি প্রদান তাঁর তত্ত্বাবধানেই চিকিৎসকদের পক্ষে যায়। এছাড়া তাঁর পর্যবেক্ষণে রয়েছে একাধিক জনস্বার্থমুখী মামলা। এরকম একটি যোগ্য মানুষকেই হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির পদে দেখা যাবে খুব শীঘ্রই। আশা করা হচ্ছে,বরাবরের মতো নতুন দায়িত্বটিও যথাযথভাবেই পালন করবেন অভিজ্ঞতাসম্পন্ন বিচারক দেবাশিস করগুপ্ত।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!