এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > শিক্ষায় উন্নয়ন! কলেজে সাদা খাতায় হাজিরার রেকর্ড ৬ মাস ধরে খোদ কলকাতার বুকেই!

শিক্ষায় উন্নয়ন! কলেজে সাদা খাতায় হাজিরার রেকর্ড ৬ মাস ধরে খোদ কলকাতার বুকেই!

রাজ্যের কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে যখন ছাত্রছাত্রীদের হাজিরা ও উপস্থিতির হার নিয়ে কড়া নির্দেশ জারি করছে রাজ্য সরকার, ঠিক তখনই সেই হাজিরার খাতা না থাকায় প্রবল বিতর্ক রাজা মণীন্দ্রচন্দ্র কলেজে। সূত্রের খবর, এখানে ছাত্রছাত্রীদের অ্যাটেনডেন্সের বেশিরভাগই খাতা নেই। উল্টে সাদা কাগজেই তাদের উপস্থিতির হার লিখে রাখছেন শিক্ষক-শিক্ষিকারা।

আর গত ছয় মাস ধরে এহেন পরিস্থিতি চলায় এখন তীব্র বিতর্কে পড়েছে এই রাজা মণীন্দ্রচন্দ্র কলেজ। কিন্তু কেন এহেন অবস্থা? এদিন এই প্রসঙ্গে সেই কলেজের পরিচালন সমিতির কয়েকজন সদস্য বলেন, গত বছর নতুন কমিটি গঠন করে কেনাকাটা সংক্রান্ত নতুন নিয়ম তৈরি হয়েছে। তাতে টেন্ডার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে যাবতীয় জিনিস কেনা হবে বলেও ঠিক হয়েছে।

কলেজ সূত্রের খবর, এখানে প্রথম বর্ষের জন্য 100 টি রেজিস্টার খাতা প্রয়োজন। বর্তমানে তা দিয়েই কাজ চলছে। কিন্তু দ্বিতীয় এবং তৃতীয় বর্ষের জন্য এই রেজিস্টার খাতার প্রচুর পরিমাণে ঘাটতি রয়েছে। তাই সাদা কাগজে সেই ছাত্র-ছাত্রীদের হাজিরা নেওয়া হচ্ছে।

কিন্তু এখানেই অনেকের প্রশ্ন যে, যদি কোনো কারণে সেই সাদা কাগজগুলি হারিয়ে যায় তাহলে সিবিসিএসের নিয়ম অনুযায়ী তো ন্যূনতম হাজিরা না থাকলে পরীক্ষাতেই বুঝতে পারবেন না সংশ্লিষ্ট পড়ুয়ারা। তাহলে কিসের ভিত্তিতে সেই উপস্থিতির হার বিচার করা হবে? এদিন এই প্রসঙ্গে কলেজের অধ্যক্ষ মন্টুরাম সামন্ত বলেন, “সমস্ত রেকর্ড আছে। কোনো সমস্যা হবে না।”

কিন্তু অধ্যক্ষ এই ব্যাপারে আশ্বাস দিলেও কলেজের এহেন কাজে প্রবল অসন্তুষ্ট কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তাদের বক্তব্য, “আগে কখনো এমনটা শোনা যায়নি। এখানে চূড়ান্ত অব্যবস্থা চলছে।” অন্যদিকে রাজা মণীন্দ্রচন্দ্র কলেজের হাজিরা খাতা নিয়ে যখন এহেন বিভ্রান্তি, ঠিক তখনই জয়পুরিয়া কলেজের উধাও হয়ে যাওয়া হাজিরা খাতাগুলো উদ্ধার হল গতকাল। জানা গেছে, বিশৃঙ্খলা অবস্থায় সেগুলিকে গতকাল পাওয়া গিয়েছে। পাশাপাশি এই ঘটনার জন্য ইতিমধ্যেই দুজনকে চিহ্নিত করে পুলিশকে একটি অভিযোগও জানিয়েছে সেই কলেজ কর্তৃপক্ষ।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

পাশাপাশি উচ্চশিক্ষা দপ্তরকেও এই ব্যপারে জানানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, আগামী দিনে এই হাজিরা খাতার বদলে বায়োমেট্রিক ব্যবস্থা চালু করে যায় কি না তা নিয়েও ভাবনা চিন্তা শুরু করেছে এই কলেজের কর্তৃপক্ষরা। সব মিলিয়ে হাজিরার রেকর্ড নিয়ে চরম বিভ্রান্তি রাজ্যের কলেজগুলিতে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!