এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কলকাতা-সংলগ্ন পঞ্চায়েতগুলিতেও এবার দলবদলে গেরুয়া প্রভাব পড়তে শুরু করল

কলকাতা-সংলগ্ন পঞ্চায়েতগুলিতেও এবার দলবদলে গেরুয়া প্রভাব পড়তে শুরু করল

রাজ্যে তারা 42 টি আসনের মধ্যে 42 টি আসন পাওয়ার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী থাকলেও সাধারণ মানুষের ভোটে এবার বাংলায় কার্যত ভরাডুবি হয়েছে তৃণমূলের। আর 2021 এর বিধানসভা ভোটকে ফাইনাল হিসেবে ধরলে, সেমিফাইনাল এই লোকসভা ভোটে বাংলায় তৃণমূলের ভিত নাড়িয়ে দেওয়ার পরই শাসক দলের একাধিক জনপ্রতিনিধিরা বিজেপিতে যোগদান করতে শুরু করেন। আর দলবদলের এই পালা যে চলবে তা প্রথম দিনই জানিয়ে দিয়েছিল গেরুয়া শিবির।

এক জায়গা থেকে অপর জায়গা – সর্বত্র তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদান করার হিড়িক পড়ে গেছে। কিছুদিন আগেই সাঁকরাইল ব্লকের বাণীপুর 2 নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান তপন দাস বিজেপিতে যোগ দেন। আর উপপ্রধান বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরই এই পঞ্চায়েতটি তৃণমূলের হাতছাড়া হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন অনেকে।

জানা গেছে, 9 আসনবিশিষ্ট সাকরাইল ব্লকের বানীপুর 2 নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতে তৃণমূল 4, বিজেপি 4 এবং নির্দল একটি আসন পায়। আর এরপর নির্দল সদস্য তপন দাস তৃণমূলকে সমর্থন করার পরই শাসক দল এই পঞ্চায়েতের দখল নিলে প্রধান তৃণমূলের রীতা দাস এবং উপপ্রধান তপন দাসকে করা হয়। তবে এক বছর যেতে না যেতেই সেই উপপ্রধান তপন দাসের সঙ্গে এই পঞ্চায়েতের প্রধান সহ অন্যান্য তৃণমূলের সদস্যদের প্রবল বিবাদ শুরু হয়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

আর এরপরই সম্প্রতি উপপ্রধান তপন দাস গত 6 জুন নিজের পদত্যাগপত্র ব্লক সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিকের কাছে জমা দেন। যার ফলে এই পঞ্চায়েতের ভবিষ্যৎ এখন কি হবে, তা নিয়ে বিভিন্ন মহলে গুঞ্জন শুরু হয়েছে। তবে এই ব্যাপারে কোনো সমস্যাই হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে তৃণমূল।

এদিন এই প্রসঙ্গে দক্ষিণ হাওড়া তৃণমূলের কার্যকরী সভাপতি তপন পাল বলেন, “উপপ্রধান পদত্যাগ করলে বা দল বদল করলে আমাদের কিছু যায় আসে না। প্রধান আমাদের রয়েছেন, ফলে তার নেতৃত্বেই পঞ্চায়েতের কাজকর্ম স্বাভাবিকভাবে চলবে।” অন্যদিকে উপপ্রধান তপন দাস বিজেপিতে যোগ দেওয়ায় কিছুটা উজ্জীবিত গেরুয়া শিবির।

এদিন এই প্রসঙ্গে হাওড়া সদর বিজেপির সহসভাপতি রুদ্রপ্রতাপ দাস বলেন, “অনেক পঞ্চায়েত সদস্য দল ছাড়ার জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। আগামী দিনে তারা বিজেপিতে যোগ দেবেন এবং বিজেপি একাধিক পঞ্চায়েত দখল করবে।” সব মিলিয়ে এবার কলকাতা সংলগ্ন পঞ্চায়েতগুলিতে দলবদলের জেরে গেরুয়া প্রভাব আরও প্রকট হয়ে ফুটে উঠতে শুরু করল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!