এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কবে থেকে নির্মাণকাজ শুরু হতে চলেছে অযোধ্যার রামমন্দিরের – জেনে নিন বিস্তারিত

কবে থেকে নির্মাণকাজ শুরু হতে চলেছে অযোধ্যার রামমন্দিরের – জেনে নিন বিস্তারিত


বহুপ্রতিক্ষিত অযোধ্যার মামলার রায় দান হবার পরেই মন্দিরের নকশা চূড়ান্ত করে ফেলেছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। গত 9 নভেম্বর সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে অযোধ্যা মন্দির নির্মাণে 2.77 একর জমি নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। এ প্রসঙ্গে সুপ্রিমকোর্ট নির্দেশ দিয়েছে একটি ট্রাস্ট তৈরী করার। অন্যদিকে, সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডকেও মসজিদের জন্য পাঁচ একর জমি দেবার নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। তবে অযোধ্যার রাম মন্দির নির্মাণ যত তাড়াতাড়ি সম্ভব শুরু করতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার নির্ধারিত ট্রাস্টি বোর্ড।

সূত্রের খবর, আগামী রামনবমীর শুভদিনে অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণ শুরু হতে চলেছে। তবে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ আগামী তিন মাসের মধ্যে রাম মন্দির নির্মাণের কাজ শুরু করতে হবে। সেদিকেও নজর রেখেছে কেন্দ্রীয় সরকার।

গত তিন দশক ধরেই অযোধ্যায় মন্দির নির্মাণ চলছে। তবে 2020 সালের দোসরা এপ্রিল অযোধ্যায় রাম নবমীর দিন থেকেই মন্দির নির্মাণ কার্য শুরু হবে বলে জানা গেছে। আগামী মকর সংক্রান্তির দিন রাম মন্দিরের শিলান‍্যাস হবে বলে জানা গেছে। মন্দিরের নকশা তৈরি করেছেন স্থপতি চন্দ্রকান্ত সোমপুরা। প্রাক্তন ভিএইচপি প্রধান অশোক সিঙ্গল নকশা তৈরি করতে অনুরোধ করেছিলেন চন্দ্রকান্তকে।

তবে এই বিশাল স্থপতি বানাতে এক দীর্ঘকালীন সময় যে ব্যয় হবে সে বিষয়ে নিশ্চিত সবাই। বিশ্ব হিন্দু পরিষদ থেকে জানা গেছে, এই মন্দির নির্মাণ আগামী চার বছরের আগে কোন মতেই শেষ হবেনা। তবে 2024 এর লোকসভা ভোটকে লক্ষ্য রেখেই বারংবার তারা জানাচ্ছে 24 এর আগেই অযোধ্যা মন্দির নির্মাণ কল্প সম্পূর্ণ হবে। তবে বিরোধীদের দাবি, আগামী লোকসভা ভোটে অযোধ্যা মন্দিরকে প্রচার এর অঙ্গ হিসাবে উল্লেখ করা হবে। আর তার জন্যই এই মন্দির নির্মাণ কল্প 2024 এর আগেই শেষ করা হবে বলে বলা হচ্ছে।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এই রাম মন্দির নির্মাণে 1.25 লাখ কিউবিক ফুট পাথর ইতিমধ্যে খোদাই করা শুরু হয়েছে অযোধ্যায়। পুরো মন্দিরটি তৈরি করতে 1.75 কিউবিক পাথরের প্রয়োজন হবে বলে জানিয়েছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ।

অন্যদিকে, রাজনৈতিক মহলের একাংশের দাবি, কেন্দ্র এবং উত্তরপ্রদেশে দুদিকেই বিজেপি সরকার থাকায় অযোধ্যা মন্দির নির্মাণে কোন বাধা আসবে না বলেই মনে করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে, আদিত্য নারায়ণ যোগী অযোধ্যা মন্দির নির্মান কল্পের সুবিধার্থে চওড়া রাস্তা এবং নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ যোগাযোগ ব্যবস্থা করে দিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে একটি ট্রাস্ট গঠন হবে, যারা এই মন্দির নির্মাণে সমস্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে। তবে কারা কারা ট্রাস্টি বোর্ডের অন্তর্ভুক্ত হবেন, তা এখনো পর্যন্ত ঠিক করা হয়নি। রাম জন্মভূমি আন্দোলনের সঙ্গে যারা জড়িত তাঁদের এখন একটাই চিন্তা, যে রাম মন্দির ঘিরে তাদের এত লড়াই সেই রাম মন্দির নির্মাণ সম্পন্ন হতে আরো কতদিন সময় ব্যয় করতে হবে। অন্যদিকে, এই রাম মন্দির নির্মাণের শেষে পর্যটন মানচিত্রে অযোধ্যা যে একটা বিশিষ্ট জায়গা অধিকার করবে সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। আপাতত সমগ্র পরিস্থিতির ওপর নজর রেখেছে দেশের ওয়াকিবহাল মহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!