এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কিষানজিকে আউট করেছি ,আর এই পেঁচি মস্তানদের সায়েস্তা করতে বেশিক্ষণ সময় লাগেনা : শুভেন্দু অধিকারী

কিষানজিকে আউট করেছি ,আর এই পেঁচি মস্তানদের সায়েস্তা করতে বেশিক্ষণ সময় লাগেনা : শুভেন্দু অধিকারী

ঝাড়গ্রাম: কার্তিক গুহ-   বিজেপির লুঠ সন্ত্রাস অপশাসন এর প্রতিবাদে আন্দোলন গড়ে তুলতে আদিবাসী সহ জঙ্গলমহলের সমস্ত উপজাতি সম্প্রদায়ের সংস্কৃতি রক্ষার স্বার্থে নয়াগ্রাম ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস এর উদ্যোগে নয়াগ্রামে জনসভা করলেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের মাননীয় পরিবহন, জলসম্পদ উন্নয়ন ও সেচ মন্ত্রী শ্রী শুভেন্দু অধিকারী।

শুভেন্দু অধিকারী জানান সিপিএমের নাম করে যারা একসময় অত্যাচার করতো তারাই আজ জামা পাল্টে বিজেপি হয়েছে।মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।নয়াগ্রামের উজ্বল দত্তের কাকার বাড়ি যারা ভেঙেছে তাদের পুলিশ ব্যবস্থা নিয়েছে।বাড়ি ভাঙার তো দূরের কথা একবার একটা ঠিল ছুঁড়ে ক্ষমতা দেখাক বরডাঙার মাটিতে দাঁড়িয়ে বলে যাচ্ছি।অনেক গুন্ডাকে সজা করেছি আমি।পাঁচ পয়সার গুন্ডাদের সায়েস্তা করতে পাঁচ মিনিট সময় লাগবে না।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

সাথেই এদিন বলেন যে লক্ষন শেঠ, সুশান্ত ঘোষের মতোন গুন্ডাকে সজা করেছি,আমি কৃষেনজির মতোন গুন্ডাকে জঙ্গলমহল ছাড়া করেছি। ২০১১ সালের ১২ নভেম্বর ফেঁকোঘাট থেকে বিরিহাঁড়ির পদযাত্রা কথা মনে আছে?সেই পদযাত্রায় বিরিহাঁড়িতে লুকিয়ে থাকা কৃষেনজি বুড়িশোলের জঙ্গলে পালাতে বাধ্য হয়েছিল।লক্ষণ শেঠকে জব্দ যিনি করতে পারেন সুশান্ত ঘোষকে গড়বেতা ছাড়া যিনি করতে পারেন, জালিম পান্ডে অনুজ পান্ডেকে জেলের ঘানি যিনি টানাতে পারেন কৃষেনজিকে যিনি আউট করতে পারেন তার কাছে পেঁচি মস্তানদের সায়েস্তা করতে বেশিক্ষণ সময় লাগেনা।তাই আপনারা ঐক্যবদ্ধ ভাবে লড়াই টা করুন।আমরা গনতান্ত্রিক লড়াই চাই।

 

সাথেই এদিন প্রশ্ন তোলেন যে কেনো মেদিনীপুর ও কেশপুরের লোক ঘর ছাড়া হব?কেন পার্টি অফিস বন্ধ হবে?আমি সব জায়গায় বলেছি সব পার্টি অফিস খোলা থাকবে, সব দল মিছিল করবে।গ্রামের লোক এসটি এসসি লোকই গ্রামছাড়া হয়,ঘরছাড়া হয় এরাই ক্ষতিগ্রস্থ হয়।আমি কখনও ঘরছাড়া হইনি।নেতা মন্ত্রীরা কখনও মার খায় না ঘর ছাড়া হয়না।আপনারা মাড় খান সাধারন মানুষ।গনতান্ত্রিক পরিবেশ থাকবে।আমরা লোকসভা ভোটে খুব কম ১১হাজার ৬০০ ভোটে হেরেগেছি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!