এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > ৩৩ বছরের খরা কাটিয়ে পাহাড়ের এই গরিমা ফিরিয়ে দিতে আন্তরিক প্রয়াস মুখ্যমন্ত্রীর

৩৩ বছরের খরা কাটিয়ে পাহাড়ের এই গরিমা ফিরিয়ে দিতে আন্তরিক প্রয়াস মুখ্যমন্ত্রীর

Priyo Bandhu Media

দীর্ঘ তিন দশকেরও বেশি সময় পেরিয়ে স্বমহিমায় উপত্যকায় ফিরতে চলেছে ‘গভর্নস গোল্ড কাপ টুর্নামেন্ট’। তবে ফিরছে ‘জিটিএ চেয়ারম্যানস গোল্ড কাপ’ নামে। ১৯৮৫ সালে পৃথক রাজ্যের দাবীতে সুভাষ ঘিসিংয়ের আন্দোলন শুরু হওয়ার আগে শেষবারের মতো গোল্ড কাপ টুর্নামেন্ট হয়েছিল দার্জিলিং-এ।

মোহনবাগান,ইষ্টবেঙ্গল,মহামেডান ক্লাবের মতো জনপ্রিয় সব ক্লাবই একসময় এই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহন করেছে। আবার ফিরে আসছে সেই পাহাড়ে সাড়া জাগানো টুর্নামেন্ট। বিমল গুরুং এর কারণে তৈরি হওয়া অশান্তির প্রেক্ষিতে পাহাড়ে ফের থমকে থাকা উন্নয়নের গতিকে চাঙ্গা করতে রাজ্যসরকারের সহায়তা এবং আর্থিক মদতে কাজ শুরু করেছে গোর্খাল্যান্ড টেরিটোরিয়াল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (জিটিএ)।

তাই মুখ্যমন্ত্রীর নির্ধারিত পথে হেঁটেই দার্জিলিং-এর উন্নয়নের দায়িত্বভার নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছে জিটিএ’র চেয়ারম্যান বিনয় তমাং এবং ভাইস চেয়ারম্যান অনীত থাপা। এই প্রেক্ষিতে ফুটবলপ্রেমী পাহাড়বাসীকে টানতে দার্জিলিং গোল্ড কাপ টুর্নামেন্ট জিটিএ-র মাধ্যমেই ফিরিয়া আনতে মরিয়া রাজ্যসরকার।

শ্যামপুজোর দিন মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনে ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের সঙ্গে প্রতিমা দর্শনে এসেছিলেন জিটিএ’র চেয়ারম্যান বিনয় তমাং। অতিথি অভ্যাগতদের সঙ্গে মায়ের উদ্দেশ্যে নিবেদিত প্রসাদী ভোগ গ্রহন করলেন তিনি। সঙ্গে ফের চালু হতে চলা দার্জিলিং গোল্ড কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধনের জন্যে নেত্রীর কাছে আবেদনও করেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী সেঔ আবেদনে সাড়া দিয়েছেন বলেই খবর। আগামী ডিসেম্বরের শুরুর দিকেই শালগুড়ার এই টুর্নামেন্ট উদ্বোধণ করার ইচ্ছে রয়েছে বিনয়ের। এমনটাই জানালেন তিনি।

টুর্নামেন্ট নিয়ে ইতিবাচক পদক্ষেপ নিচ্ছেন ক্রীড়ামন্ত্রীও। এ প্রসঙ্গে ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বাবু দীর্ঘ ৩৩ বছর পর টুর্নামেন্ট চালু হওয়ার বিষয়টি সাধুবাদ জানিয়েছেন। জানালেন,এই টুর্নামেন্টে স্থানীয় কয়েকটি দলকে খেলার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। তাঁর বিশ্বাস এবার পাহাড় থেকে আন্তর্জাতিক স্তরের উদীয়মান ফুটবলারের জন্ম হবে।

উল্লেখ্য,গত বছর ৫ সেপ্টেম্বর দার্জিলিংয়ের ম্যালে আয়োজিত একটি সরকারি অনুষ্ঠানের মঞ্চ থেকে দার্জিলিং এর জন্যে হিল ইউনিভার্সিটি এবং সেখানকার ২৮ হাজার স্কুলপড়ুয়ার জন্য বিনামূল্যে বর্ষাতি ও ব্যাগ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেইসঙ্গে এটাও জানিয়েছিলেন তিনটি ধাপে উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহন করা হবে পাহাড়ে। সেই সফরেই দার্জিলিং গোল্ড কাপ টুর্নামেন্ট আবার চালু করার জন্যে ক্রীড়ামন্ত্রীকে প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

নেত্রীর সেই নির্দেশ মতোই এগোচ্ছেন অরূপ বাবু। টুর্নামেন্ট কোন কোন দল খেলবে তা ঠিক করতে বৃহস্পতিবার আইএফএ’র (ইন্ডিয়ান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশান) সঙ্গে বৈঠকে বসবে জিটিএ। এই টুর্নামেন্টকে আন্তর্জাতিক স্তরের টুর্নামেন্ট বলেই ব্যাখ্যা করেছেন বিনয় তমাং।কারণ ইতিমধ্যেই খেলার জন্যে বাংলাদেশ, ভুটান ও নেপাল তাঁদের দল পাঠানোর ব্যাপারে সবুজ সংকেত দিয়েছে। সব মিলিয়ে মোট ১৬ টি দল অংশ নেবে টুর্নামেন্টে,তার মধ্যে চারটি দল থাকবে পাহাড়েরই, এমনটাই জানা গিয়েছে জিটিএ সূত্রে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!