এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মেদিনীপুর > কেশিয়ারিতেও গেরুয়া প্রভাব বাড়ছে? তৃনমূলকে মেরে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

কেশিয়ারিতেও গেরুয়া প্রভাব বাড়ছে? তৃনমূলকে মেরে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

এবার পঞ্চায়েতে জঙ্গলমহলের জেলাগুলিতে বিজেপি ভালো ফলাফল করার পরেই শাসকদল তৃনমূলের কর্মীদের ওপর তাঁরা হামলা করছে এই অভিযোগে কদিন ধরেই সরব হয়েছে তৃনমূল। এবার তৃনমূলের সেই অভিযোগকে সত্যি করে কেশিয়ারির নছিপুর পঞ্চায়েতের আমলাসাই গ্রামে শাসকদলের কর্মীদের মারধর করার অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে।

জানা গেছে, গত বুধবার রাতে এই আমলাসাই গ্রামে কজন তৃনমূল নেতা দলীয় কর্মীদের নিয়ে এক বৈঠক করলে কেন এত রাতে বাইরের লোক আসবে সেই প্রশ্ন তুলে কজন গ্রামবাসী সেই তৃনমৃল নেতাদের বিক্ষোভ দেখায়। অভিযোগ, এরপরই এই তৃনমৃল নেতাদের বেধে রেখে ব্যাপক মারধর করা হয়। পরে তাঁদের উদ্ধার করতে পুলিশ এলে পুলিশের গাড়িও ভাঙচুর করা হয় বলে অভিযোগ। পরে কোনোরকমে পুলিশ সেই তিন তৃনমূল নেতাকে উদ্ধার করে আনে। তৃনমূলের অভিযোগ, তাঁদের কর্মীদের বেধে রেখে বিজেপির কয়েকজন দুস্কৃতি একটি সাদা কাগজে সই করিয়ে নিয়েছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

অন্যদিকে বিজেপির দাবি, তাঁদের পঞ্চায়েত প্রতিনিধি মমতা দন্ডপাটের বাড়িতে চড়াও হয়ে তৃনমূলকে বোর্ড গঠনে সমর্থন করতে হবে এই দাবি তোলে দুস্কৃতিরা। তাই গ্রামের লোকজন সেই দুস্কৃতীদের একটি ঘরে বন্ধ করে রাখে গ্রামবাসীরা। তবে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর করার ব্যাপারটি সম্পূর্নরুপে অস্বীকার করেছে বিজেপি। এদিকে এদিনের এই গন্ডগোল প্রসঙ্গে খড়গপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ওয়াই রঘুবংশী বলেন, “তিনজনকে আটকে রাখার ঘটনায় উদ্ধার করতে গেলে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। এ নিয়ে একটি মামলাও দায়ের করা হয়েছে।ঘটনার পূর্নাঙ্গ তদন্ত চলছে।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!