এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কাটমানি ফেরত থেকে ডাক্তারদের সাথে নমনীয়তা প্রশান্ত কিশোরের ভূমিকা দেখছে রাজনৈতিক মহল

কাটমানি ফেরত থেকে ডাক্তারদের সাথে নমনীয়তা প্রশান্ত কিশোরের ভূমিকা দেখছে রাজনৈতিক মহল

লোকসভা ভোটে তৃনমূলের ভরাডুবির পর যাতে স্বচ্ছতা বজায় থাকে তার জন্য একাধিক কড়া পদক্ষেপ নিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।গত 18 জুন নজরুল মঞ্চে দলের কাউন্সিলরদের নিয়ে বৈঠকে কোনো কাটমানি খাওয়া বরদাস্ত করা হবে না বলেও সকলকে সতর্ক করে দিয়েছেন তিনি। যা নিয়ে বর্তমানে আলোড়ন পড়ে গিয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে।

মুখ্যমন্ত্রী দলীয় নেতাদের উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারি দেওয়ায় দুর্নীতিগ্রস্ত তৃণমূল নেতাদের কাছ থেকে টাকা ফেরতের দাবিতে রাজ্য জুড়ে বিক্ষোভ সংঘটিত হয়েছে। আর এর ফলে শাসক দল কিছুটা অস্বস্তিতে পড়লেও একাংশ মনে করছেন, এর পেছনে রয়েছে পরিকল্পিত কোনো কৌশল।

কেননা ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী তার সমস্ত সরকারি প্রকল্পের সুযোগ সুবিধা যাতে সরাসরি সাধারণ মানুষ পান এবং তার জন্য কোনো রকম টাকা পয়সা যাতে কোনো নেতাদের দিতে না হয়, তার জন্য গ্রিভান্স সেল তৈরি করেছেন। যার মাথায় বসানো হয়েছে অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল দীপ্তাংশু চৌধুরীকে।

জানা গেছে, সপ্তাহের প্রথম দিন সোমবার প্রতি জেলার জেলাশাসক, মহকুমা শাসক এবং ব্লক উন্নয়ন আধিকারিক সাধারণ মানুষের সমস্ত সুবিধা অসুবিধা নিয়ে কথা বলবেন। আর হঠাৎ মুখ্যমন্ত্রীর এহেন পরিকল্পনার পেছনে তৃণমূলের ভোট কৌশলী হিসেবে পরিচিত প্রশান্ত কিশোরের ভূমিকা রয়েছে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশ।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, কিছুদিন আগেই এই প্রশান্ত কিশোর তৃণমূলের একাধিক জয়ী এবং পরাজিত সাংসদ ও জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে রাজ্যের ঠিক কোন ব্যাপারে সাধারণ মানুষ তৃণমূলের প্রতি ক্ষুব্ধ হয়ে রয়েছেন, তা জানতে পারেন। আর তারপরই দুর্নীতি বন্ধ করতে মুখ্যমন্ত্রীর এই পরিকল্পনার পেছনে তাঁরই হাত রয়েছে বলে মনে করতে শুরু করেছে ওয়াকিবহাল মহল।

অন্যদিকে কিছুদিন আগেই মেডিকেল কলেজের চিকিৎসকদের লাগাতার কর্মবিরতি নিয়ে রাজ্যজুড়ে স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় তীব্র অসন্তোষ দেখা দিলে সেই পরিস্থিতি মোকাবিলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেই চিকিৎসকদের নিয়ে নিজের মানবিক রূপ দেখিয়ে গোটা ব্যবস্থার সহজে সমাধান করলে সেই মুখ্যমন্ত্রীর ভূমিকা নিয়ে সব মহলে প্রশংসা হয়। আর এর পেছনেও সেই ভোট ম্যানেজার প্রশান্ত কিশোরের ভূমিকা রয়েছে বলে দাবি একাংশের।

আর দুর্নীতি বন্ধ করতে মুখ্যমন্ত্রীর এহেন সিদ্ধান্ত বর্তমানে তৃণমূলের ভাবমূর্তি ফেরাতে অনেকটাই কাজে দেবে বলে মনে করছে নবান্নের আমলারা। এদিন এই প্রসঙ্গে এক আমলা বলেন, “মুখ্যমন্ত্রীর সাম্প্রতিকতম টেলিভিশন সাক্ষাতকারে সংবাদমাধ্যম নির্বাচন থেকে শুরু করে তার গোটা সাক্ষাৎকারে সেই পরামর্শের প্রভাব যথেষ্ট প্রতিফলিত।”

সব মিলিয়ে প্রথমে ডাক্তারদের সাথে নমনীয়তা, আর এবার দলের নেতাদের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি দিয়ে কাটমানি ফেরাতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সতর্কবাণী – সাধারণ মানুষের কাছে আরও বেশি করে পৌঁছে যেতে তৃণমূলের এই মাস্টারস্ট্রোকের পেছনে ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোরেরই অনবদ্য অবদান রয়েছে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!