এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা >  রাজ্য- রাজনীতিতে চমকে দিয়ে 25 হাজার কোটি টাকার কাটমানির হিসেব পেশ ভারতী ঘোষের

 রাজ্য- রাজনীতিতে চমকে দিয়ে 25 হাজার কোটি টাকার কাটমানির হিসেব পেশ ভারতী ঘোষের

পুলিশ সুপার থাকার সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে “মা” বলে অভিহিত করতেন বর্তমান বিজেপি নেত্রী ভারতী ঘোষ। তবে বেশ কিছুমাস আগে থেকেই রাজ্যের শাসক দলের সাথে তার দূরত্ব বাড়তে শুরু করে। সরকারের পক্ষ থেকে তাকে পুলিশ সুপার থেকে সরিয়ে দেওয়ার পরই অহিনকুল সম্পর্ক তৈরি হয় সেই ভারতী ঘোষ এবং মুখ্যমন্ত্রীর মধ্যে।

পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছে যায় যে একসময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই সর্বাধিনায়িকা বলে প্রচার করা ভারতী ঘোষ বিজেপিতে নাম লেখান। আর তারপরেই বিভিন্ন জায়গায় সভা-সমিতিতে উপস্থিত হয়ে তৃণমূলের বিরুদ্ধে নানা আক্রমণ চালাতে দেখা যায় তাকে।

বিভিন্ন সময়ে রাজ্যের শাসক দল ও তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধেও নানা মন্তব্য করতে শোনা যায় সেই ভারতী ঘোষকে। আর এবার তথ্যপরিসংখ্যান দিয়ে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের বিরুদ্ধে বিপুল কাটমানি খাওয়ার অভিযোগ তুলে সরব হলেন প্রাক্তন পুলিশ সুপার তথা হেভিওয়েট এই বিজেপি নেত্রী।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

বস্তুত, লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের খারাপ ফলাফল হওয়ার পরই দলে দুর্নীতি বাসা বেধেছে আঁচ করে কেউ কাটমানি খেলে তার টাকা তাকেই ফেরত দিতে হবে বলে মন্তব্য করতে দেখা গিয়েছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তারপরেই তৃণমূলের অনেক দুর্নীতিগ্রস্ত নেতার বাড়ি ঘেরাও করে টাকা ফেরতের দাবিতে বিক্ষোভ দেখাতে দেখা যায় সাধারণ মানুষদের। যাকে কেন্দ্র করে প্রবল অস্বস্তিতে পড়ে রাজ্যের শাসকদলের নেতা মন্ত্রীরা।

তবে তৃণমূলের দুর্নীতি একদম উপরতলায় রয়েছে বলে পরোক্ষে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে এই কাটমানি ইস্যুতে মন্তব্য করতে দেখা গিয়েছিল বিজেপিকে। আর এবার এই ব্যাপারে সমস্ত তথ্য পরিসংখ্যান জোগাড় করে তা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা দলের সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের হাতে তুলে দিতে মরিয়া ভারতী ঘোষ।

সূত্রের খবর, সম্প্রতি বিজেপির চিন্তন বৈঠকে ভারতী ঘোষ একটি গোপন রিপোর্ট পেশ করে জানিয়েছেন যে, গত 2011 থেকে 2019 সাল পর্যন্ত 8 বছর ধরে তৃণমূল 25 হাজার কোটি টাকার কাটমানি জমিয়েছে। জানা গেছে, ইন্ডিয়ান স্ট্যাটিসটিক্যাল ইনস্টিটিউটের এক অধ্যাপককে দিয়ে এই রিপোর্ট তৈরি করেছেন তিনি।

আর রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে বিজেপি নেত্রী ভারতী ঘোষ এই রিপোর্ট তৈরি করলে তা বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে তুলে দেওয়ার জোর তৎপরতা শুরু হয়েছে। সূত্রের খবর, ভারতী ঘোষের জমা দেওয়া এই রিপোর্টটি নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহের হাতে তুলে দেবেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এবং রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সুব্রত চট্টোপাধ্যায়।

এমনকি আগামী 16 আগস্ট এই মর্মে একটি বৈঠক করারও কথা রয়েছে গেরুয়া শিবিরের। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের অনেকে বলছেন, আগামী 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যে নিজেদের তৃণমূল বিরোধীতার সুরকে আরও চওড়া করতে চায় গেরুয়া শিবির।

আর তাইতো তৃণমূলের বিরুদ্ধে সুর চড়াতে এখন রাজ্যের শাসকদলের দুর্নীতিকে হাতিয়ার করে ময়দানে নামতে চাইছে তারা। আর এক্ষেত্রে তৃণমূলের বিরুদ্ধে কাটমানির অভিযোগ তুলে তথ্যপরিসংখ্যান জমা দেওয়া ভারতী ঘোষের রিপোর্ট বিজেপির ক্ষেত্রে যে অনেকটাই কাজে দেবে এবং তৃণমূলকে যে অনেকটাই ভোগাবে, সেই ব্যাপারে নিশ্চিত বিশ্লেষকরা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!