এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার প্রসঙ্গেই ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে মোদির প্রশংসায় পঞ্চমুখ এককালের অন্যতম বিরোধী

কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার প্রসঙ্গেই ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে মোদির প্রশংসায় পঞ্চমুখ এককালের অন্যতম বিরোধী


এককালে অটলবিহারী বাজপেয়ীর মন্ত্রিসভার সদস্য ছিলেন, কিন্তু মোদী-যুগে সেই দলের এককালের হেভিওয়েট মন্ত্রী আজ কোনঠাসা। আর ব্রাত্যের তালিকায় থেকে বিরোধী দলের সাথে হাত মিলিয়ে বার বার মোদীর বিরুদ্ধে একের পর এক তোপ দেগেছেন। সম্পৰ্ক ক্রমে খারাপ হয়েছে। মোদী সরকারের নিন্দা ছাড়া তাঁর কণ্ঠে বিগত পাঁচ বছরে কিছু শোনা যায়নি। আর এদিনের মোদির কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে এহেন সিদ্ধান্ততে মোদির প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন যশবন্ত সিনহা।

তিনি এদিন দাবি করেন যে, ৩৭০ ধারা অবলুপ্তির পূর্ণ ফায়দা তুলবে মোদী সরকার। এখন ভোট হলে বিজেপি ৪০০-র বেশি আসন জিততে পারে। কারণ গোটা দেশই এখন ৩৭০ ধারা অবলুপ্তিকে সমর্থন করছে। তিনি আরো দাবি করেন , বলেন , এখন মোদী অবলীলায় রাজীব গান্ধীর রেকর্ড ভেঙে দিতে পারেন। এখন যদি ভোট হত ৪০০ বেশি আসন পেত বিজেপি।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

যদিও প্রশংসার পাশাপাশি কটাক্ষ করতে ছাড়েননি তিনি। তিনি বলেন যে, কাশ্নীর থেকে ৩৭০ ধারা অবলুপ্তি হলো শুধুমাত্র একটি রাজনৈতিক চাল।এর সঙ্গে কাশ্মীরের মানুষের কোনও ভালোমন্দ জড়িয়ে নেই। কাশ্মীরের বিধানসভা নির্বাচনের দিকে নজর রেখেই এই চাল চেলেছে বিজেপি।

প্রসঙ্গত গতকাল ৩৭০ ও ৩৫এ ধারা বিলুপ্ত করা হয়। এই নিয়ে অমিত শাহ দাবি করেন যে, ৩৭০ ও ৩৫এ ধারা অবলুপ্তির পর সন্ত্রাসবাদ নির্মূল হবে। কাশ্মীরের জীবনযাত্রাও স্বাভাবিক হতে শুরু করবে। তবে এতকাল এত মোদী বিরোধিতার পর এই বর্ষীয়ান বিরোধিতা করা নেতার মুখ থেকে এইসব শুনে রাজনৈতিকমহলে শুরু নতুন জল্পনা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!