এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কাশ্মীর নিয়ে মন্তব্যের জেরে এবার দেশদ্রোহিতার মামলার মুখে মহিলা সমাজকর্মী

কাশ্মীর নিয়ে মন্তব্যের জেরে এবার দেশদ্রোহিতার মামলার মুখে মহিলা সমাজকর্মী

এবার কাশ্মীর নিয়ে মন্তব্য করায় রাজনৈতিক ও সমাজকর্মী শেহলা রশিদের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার মামলা রুজু করল দিল্লি পুলিশ। জানা গেছে, কাশ্মীরে ‘মানবাধিকার লঙ্ঘন’ করা হচ্ছে বলে নানা অভিযোগ তুলে সম্প্রতি সরব হয়েছিলেন এই সমাজকর্মী। আর তার ফলেই এবার তাঁর বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতা, দাঙ্গায় উস্কানি-সহ এক গুচ্ছ ধারায় মামলা দায়ের করা হল।

বস্তুত, গত 18 আগষ্ট শেহলা রশিদ বলেছিলেন, “সেনা জওয়ানরা কাশ্মীরে খেয়ালখুশি মতো বাড়িতে অভিযান চালাচ্ছে এবং বাসিন্দাদের তুলে নিয়ে যাচ্ছে।” যার পরেই তীব্র বিতর্ক তৈরি হয়। তবে শেহলা রশিদের সেই অভিযোগকে সম্পূর্ণরুপে উড়িয়ে সেনাদের পক্ষ থেকে বিবৃতি দিয়ে বলা হয়েছিল, “শেহলার তোলা অভিযোগ ভিত্তিহীন। এই ধরনের সত্যমিথ্যা যাচাই না করে এই ধরনের অভিযোগ তোলে শত্রুশক্তি বা সংগঠন।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

কিন্তু এর পরেও নিজের অবস্থান থেকে সরেননি এই সমাজকর্মী। তিনি বলেন, ”সেনা কর্তৃপক্ষ তদন্ত শুরু করলেই আমি তাঁদের হাতে প্রমাণ তুলে দেব। আমি এ কথা বলার পরও সেনা তদন্ত শুরু করেছে? আমি যা বলেছি, পুরোটাই কাশ্মীর থেকে আসা লোকসজনের বিশ্বাসযোগ্য কথোপকথনের ভিত্তিতে। মিথ্যে বলার কোনও প্রশ্নই নেই। আমি একটা নয় অনেকগুলো অভিযোগ তুলেছি। কাশ্মীরের মানুষ গ্যাস পাচ্ছেন না, রান্না করতে পারছেন না।”

আর নিজের মন্তব্যে অনড় থাকাতেই এবার হয়ত মামলার জালে জড়াতে হল তাঁকে। সূত্রের খবর, দিল্লি পুলিশ ১২৪-এ ধারায় দেশদ্রোহিতা, ১৩৫-এ ধারায় শত্রুতায় প্ররোচনা, ১৫৩ ধারায় দাঙ্গায় উস্কানি, ৫০৪ ধারায় শান্তিভঙ্গের উদ্দেশ্যে এবং ইচ্ছাকৃত অপমানের উদ্দেশ্যে মন্তব্য, ৫০৫ ধারায় জনগণের মধ্যে অবিশ্বাসের বাতাবরণ তৈরির উদ্দেশ্যে মন্তব্যের মতো ধারায় অভিযোগ এনেছে। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী আলাখ অলোক শ্রীবাস্তবের অভিযোগের ভিত্তিতেই এই মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Top
error: Content is protected !!