এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > চলে গেলেন করুণানিধি,ব্যাপক ক্ষতি তামিলনাড়ুর রাজনীতিতে

চলে গেলেন করুণানিধি,ব্যাপক ক্ষতি তামিলনাড়ুর রাজনীতিতে

ইন্দ্রপতন ভারতীয় রাজনীতিতে – চলে গেলেন তামিলনাড়ুর পাঁচ বারের মুখ্যমন্ত্রী তথা ডিএমকে সুপ্রিমো মুথুভেল করুণানিধি ওরফে কলাইগনার। শ্বাসনালীতে সমস্যা দেখা দেওয়ায় তাঁকে গত ১৮ ই জুলাই চেন্নাইয়ের এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রথম কদিন তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক জানানো হলেও – ধীরে ধীরে তিনি সুস্থ হতে থাকেন, এমনকি দিন কয়েক আগে তাঁকে হাসপাতাল থেকেও ছেড়ে দেওয়ার কথা ভাবেন চিকিৎসকেরা।

কিন্তু হঠাৎ করেই গতকাল থেকে তাঁর শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি হতে থাকে। এমনকি চিকিৎসকদলের তরফে জানানো হয় ২৪ ঘন্টা না কাটলে করুণানিধি বিপন্মুক্ত কিনা বলা যাচ্ছে না। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেই ২৪ ঘন্টা পেরোল না – তার আগেই আজ সন্ধ্যা ৬টা ১০ মিনিটে ৯৪ বছর বয়সে অমৃতলোকের পথে যাত্রা করলেন তিনি।

এই বর্ষীয়ান নেতার মৃত্যুতে গভীর শোকের ছায়া জাতীয় রাজনীতিতে। শোকপ্রকাশ করে বার্তা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থেকে শুরু করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী সহ দেশের প্রথম সারির সকল রাজনৈতিক নেতা-নেত্রীই। প্রসঙ্গত, করুণানিধির অবস্থা চরম সঙ্কটজনক, এই খবর পেয়েই চেন্নাই রওনা দেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় – কিন্তু শেষ দেখা আর হয় না তাঁর, মাঝপথেই পান মৃত্যুসংবাদ।

করুণানিধির মৃত্যু সংবাদ প্রকাশ্যে আসতেই আবেগের বাঁধ ভাঙতে পারে তাঁর অনুগামীদের বলে ধারণা তামিলনাড়ু সরকারের। ফলে কড়া নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে ওই বেসরকারি হাসপাতাল চত্ত্বর। ইতিমধ্যেই হাসপাতাল চত্ত্বরে ঢল নামতে শুরু করেছে ডিএমকে কর্মী-সমর্থকদের।

সূত্রের খবর, তামিলনাড়ুর অন্যান্য হেভিওয়েট রাজনৈতিক নেতানেত্রীদের শেষকৃত্য যেখানে সম্পন্ন হয়েছিল, সেই মেরিনা বিচেই করুণানিধির শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে। আগামীকাল তাঁর নশ্বর দেহ সাধারণ মানুষের শ্রদ্ধাজ্ঞাপনের জন্য তাঁর বাসভবনে রাখা থাকবে। আর তারপর অস্তগামী সূর্যকে সাক্ষী রেখে ভারতীয় রাজনীতির অন্যতম মহীরুহকে চিরবিদায় জানানো হবে।

Top
error: Content is protected !!