এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > প্রবল সঙ্কটে কর্নাটক, কি হল আবার! জেনে নিন বিস্তারিত

প্রবল সঙ্কটে কর্নাটক, কি হল আবার! জেনে নিন বিস্তারিত

শেষ পর্যন্ত বিজেপির ইচ্ছা অনুযায়ী কর্নাটকে কংগ্রেস জেডিএস জোট সরকারের পতন হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী পদে ইস্তফা দিয়েছেন জেডিএসের এইচ ডি কুমারস্বামী। আর তারপরই জল্পনা শুরু হয়েছিল যে, তাহলে এবার হয়ত বিজেপি এই কর্নাটকে সরকার গঠনের জন্য আবেদন জানাতে পারে।

কিন্তু এখনো পর্যন্ত বিজেপির বিএস ইয়েদুরাপ্পারা শীর্ষ নেতৃত্বের কাছ থেকে এখানে সরকার গঠনের ব্যাপারে কোনোরূপ সবুজ সংকেত পাননি। ফলে তৈরি হয়েছে জটিলতা। অনেকে বলছেন, হয়ত কর্নাটকে এবার রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হতে পারে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিকে ইতিমধ্যেই শীর্ষ নেতৃত্বের মতামত কি, তা জানতে আজই দিল্লি পৌঁছেছে কর্নাটকের বিজেপির প্রতিনিধি দল। যেখানে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহর সঙ্গে কথা বলেই পরবর্তী পথে পা বাড়াবেন তারা। কিন্তু অমিত শাহ কর্ণাটকের বিজেপি নেতৃত্বকে ঠিক কী নির্দেশ দেবেন, তা নিয়েই এবার তৈরি হয়েছে ধন্দ।

বিশেষজ্ঞদের মতে, সরকার ফেলার জন্য বিজেপির ইয়েদুরাপ্পারা মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন। কিন্তু কুমারস্বামীদের সরকার পড়ে যাওয়ার পরও তাদের সরকার গঠনের কথা থাকলেও তা না করায় অনেক জল্পনাই উসকে উঠতে শুরু করেছে। অনেকে বলছেন, দল ভাঙ্গানোর অপবাদ ঘোচাতে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করে নতুন বিধানসভা ভোট করাতে পারেন অমিত শাহ।

আর তাইতো এখনও পর্যন্ত দলের নেতৃত্বকে সরকার গঠনের ব্যাপারে কোনো নির্দেশ দেননি তিনি। তবে শেষ পর্যন্ত দিল্লিতে কর্নাটকের বিজেপির প্রতিনিধিদলকে ঠিক কী বার্তা দেন বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব, এখন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!