এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বৈধ নথি ছাড়া থাকা যাবে না দেশে সাফ জানিয়ে দিলেন কংগ্রেসের উপমুখ্যমন্ত্রী

বৈধ নথি ছাড়া থাকা যাবে না দেশে সাফ জানিয়ে দিলেন কংগ্রেসের উপমুখ্যমন্ত্রী

অসমের পর এবার কর্নাটকও উত্তাল হতে চলেছে। অস্তিত্ব সংকটে পড়তে চলেছে রাজ্যবাসীর। উপযুক্ত নাগরিক প্রমাণ ছাড়া কর্নাটকে বসবাসকারী মানুষদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে চলেছে কর্নাটক সরকার। অবিলম্বে তাঁদের রাজ্য এমনকী দেশ ছাড়া করা হবে বলেই সাফ কথায় জানিয়ে দিলেন কর্নাটকের উপমুখ্যমন্ত্রী ডাঃ জি পরমেশ্বর।

জানালেন,  কর্নাটকে বসবাসকারীদের চিরুনি তল্লাশি চলছে যাঁদের ভিসার মেয়াদ ফুরিয়ে গেছে কিংবা ভিসা ছাড়াই দীর্ঘদিন ধরে রাজ্যে বসবাস করে চলেছেন। সেসব ভিনদেশীদের বিরুদ্ধে যত শীঘ্র সম্ভব উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে,বলেই সতর্ক করলেন তিনি। এ প্রসঙ্গে আরো জানালেন যে,১০৭ জন আফ্রিকান মানুষকেই ইতিমধ্যে চিহ্নিতও করা হয়েছে। তাঁদেরকে দেশে ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

উল্লেখ্য,দেশের উওর-পূর্বে পার্বত্য ভূমি অসমে সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে জাতীয় নাগরিকপঞ্জীর চূড়ান্ত খসড়া। সেই তালিকায় নাম নেই ৪০ লাখ বাঙালির। এই নিয়ে তো রীতিমতো অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি রয়েছে অসমে। এর সঙ্গে সমানে পাল্লা দিয়ে চলছে বিতর্ক। অসম সরকারের এই অমানবিক আচরণের প্রেক্ষিতে তালিকায় নাম না থাকা বাঙালিদের নিজের রাজ্যে ঠাঁই দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাড়িয়েছেন সাহায্যের হাত। এই অবস্থায় সম্পূর্ণ ভিন্ন মেরুর সিদ্ধান্তের কথা শোনা গেল কর্নাটকের প্রবীন কংগ্রেস নেতা তথা উপমুখ্যমন্ত্রীর গলায়। বসবাসের জন্য উপযুক্ত নথি না দেখাতে পারলে দেশ ছাড়া করা হবে কর্নাটকে থাকা ভিনদেশীদের। এ ঘোষণার কথা সামনে আসতেই কর্নাটকের আবহাওয়াতেও চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। আমজনতার মধ্যে তীব্র চাপানউতোর চলছে। আবার অন্য একটি রাজ্যে উত্তপ্ত পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হল,এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞের একাংশ।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!