এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কর্ণাটকের জোটের সর্বশেষ পরিস্থিতি কি? জেনে নিন

কর্ণাটকের জোটের সর্বশেষ পরিস্থিতি কি? জেনে নিন

অবশেষে কি বিদ্রোহী বিধায়কদের মন ঘুরতে শুরু করেছে! জানা গেছে, শনিবার কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামী এবং কংগ্রেস নেতা সিদ্দারামাইয়ার সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক হয় বিদ্রোহী কংগ্রেস বিধায়ক এমটিবি নটরাজনের। আর সেই বৈঠকেই বরফ গলতে শুরু করেছে বলে মনে করছে বিশ্লেষকরা। যেখানে এমটিবি নটরাজন নিজের পদত্যাগপত্র ফিরিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি যে সমস্ত বিধায়করা পদত্যাগ করেছেন, তারাও যাতে তাদের পদত্যাগপত্র ফিরিয়ে নেন তিনি সেই জন্য তাদেরকে বোঝাবেন বলে জানিয়েছেন।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রাম, হোয়াটস্যাপ, ফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

কিন্তু ইতিমধ্যেই কর্নাটকের এই কংগ্রেস জেডিএস জোট সরকারকে ফেলার জন্য তৎপর হয়ে উঠেছে বিজেপি। গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, হয় আস্থা ভোটের মুখোমুখি হওয়া উচিত, আর তা না হলে মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ করা উচিত। জানা গেছে, সোমবার এই কর্নাটকে আস্থা ভোট রয়েছে। আর সেখানেই কুমারস্বামীকে প্রমাণ করতে হবে যে তার পক্ষে যথেষ্ট সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে।

এদিকে বিজেপি তাদের পক্ষ থেকে এই ব্যাপারে যতই সোচ্চার হোক না কেন, তারা আস্থা ভোট করাতে রাজি আছেন এবং বিধানসভার বাদল অধিবেশনেই তারা আস্থা ভোট করাবেন বলে স্পিকারকে ইতিমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছেন কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী এইচডি কুমারস্বামী। সব মিলিয়ে এবার কংগ্রেসের মুখ ফিরিয়ে নেওয়া বিধায়কদের ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে ইতিমধ্যেই বৈঠক শুরু করে দিলেন কংগ্রেস এবং জেডিএস নেতৃত্ব।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!