এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কালীপুজোর ভোরে বলি দেওয়া পাঁঠা ছাড়ানোর সময় গুলিবিদ্ধ তৃণমূল কর্মী, বাড়ছে জল্পনা

কালীপুজোর ভোরে বলি দেওয়া পাঁঠা ছাড়ানোর সময় গুলিবিদ্ধ তৃণমূল কর্মী, বাড়ছে জল্পনা

এবার কালীপুজোর ভোররাতে গুলিবিদ্ধ হতে হলো এক তৃণমূল কর্মীকে। সূত্রের খবর, পুরুলিয়ার পুঞ্চা থানার পাড়ুই গ্রামের তৃণমূল কর্মী পিন্টু সিনহা গত দীপাবলির রাতে পাশের গ্রাম দাদড়ে পূজো দিতে গিয়েছিল। আর এরপর পুজো দিয়ে ফিরে এসে প্রতিবারের মতো এবারও নিজের বাড়ির উঠোনে বসে বলির পাঠা ছাড়াচ্ছিল সে।

ঘড়ির কাটায় তখন ভোর সাড়ে তিনটে। তৃণমূল কর্মী পিন্টু সিনহা ও তার দাদা বাবুল সিনহা মিলে যখন সেই পাঠা মাংস কাটার কাজ করছিলেন ঠিক তখনই হঠাৎ একটি গুলি এসে লাগে সেই পিন্টু সিনহার গায়ে। এদিকে এই ঘটনায় আতঙ্কে নির্মীয়মান বাড়ির বারান্দায় গিয়ে বসে পড়েন সেই পিন্টু সিনহা।

অন্যদিকে ঠিক কে গুলি ছুড়লো তা নিয়ে তড়িঘড়ি সমস্ত পাড়া-প্রতিবেশিকে ডেকে গোটা গ্রাম টর্চের আলো দিয়ে খতিয়ে দেখেন সেই পিন্টু সিনহার দাদা বাবুল সিনহাও। কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে তেমন কাউকেই দেখতে পাওয়া যায়নি।

এদিকে গুলিবিদ্ধ তৃণমূল কর্মী পিন্টু সিনহাকে গুরুতর জখম অবস্থায় প্রথমে পুরুলিয়া সদর হাসপাতাল এবং পরে বাঁকুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জানা গেছে, তার শারীরিক পরিস্থিতি আশঙ্কাজনক। কিন্তু হঠাৎ এই ভাবে ঠিক কে তাকে গুলি করল তা নিয়ে ধন্দে রয়েছেন প্রত্যেকেই।

এদিন এই প্রসঙ্গে সেই জখম পিন্টু সিনহার মা রেনুকা সিনহা বলেন, “আমার ছেলের সঙ্গে কারো কোন ঝামেলা নেই। অথচ কালীপুজোর দিন বাড়িতে এসে যে কে ওকে গুলি করলো তা ভেবেই পাচ্ছি না।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

অন্যদিকে গোটা ঘটনায় প্রশাসনের কাছে নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি জানিয়েছেন এই গ্রামেরই বাসিন্দা তথা পুঞ্চা পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ স্থানীয় তৃণমূল নেতা ধনঞ্জয় ঘোষ। তবে এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কোনো রাজনৈতিক যোগ খুঁজে পায়নি প্রশাসন। এদিন এ প্রসঙ্গে পুরুলিয়ার পুলিশ সুপার আকাশ মাঘারিয়া বলেন, “গোটা ঘটনায় তদন্ত চলছে। তিন থেকে চার জন সন্দেহভাজনকে চিহ্নিতও করা হয়েছে।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!