এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মঞ্জু বসু কাণ্ডে রহস্য বাড়িয়ে দিলেন কৈলাশ বিজয়বর্গীয়

মঞ্জু বসু কাণ্ডে রহস্য বাড়িয়ে দিলেন কৈলাশ বিজয়বর্গীয়

নোয়াপাড়ায় বিজেপির প্রার্থী নিয়ে চূড়ান্ত নাটক রাজ্য-রাজনীতিতে। কিছুদিন আগেই নোয়াপাড়ায় তাঁকে প্রার্থী না করা এবং নির্বাচনের ব্যাপারে সম্পূর্ণ অন্ধকারে রাখা নিয়ে সংবাদমাধ্যমে ক্ষোভ উগরে দেন নোয়াপাড়ার তৃণমূল কংগ্রেসের দুবারের বিধায়ক মঞ্জু বসু। আর তারপরেই তাঁর সঙ্গে তাঁর বাড়িতে গিয়ে ‘সৌজন্য’ সাক্ষাৎ করেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। এমনকি পরবর্তীকালে মঞ্জু বসুর সাথে কলকাতা বিমানবন্দরে একান্তে আলোচনা করেন বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাশ বৈজয়বর্গীয়, সঙ্গে ছিলেন মুকুল রায়ও। এরপরেই জল্পনা ছড়াতে থাকে নোয়াপাড়ায় বিজেপির প্রার্থী হতে চলেছেন মঞ্জু বসু, আর সেই জল্পনাকে মান্যতা দিয়ে আজ বিজেপির তরফে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে মঞ্জু বসুকেই প্রার্থী ঘোষণা করা হয়। এরপরেই হয় নাটকীয় পট পরিবর্তন, মঞ্জু বসু সাংবাদিকদের জানিয়ে দেন, তাঁর সম্মতি না নিয়েই তাঁকে বিজেপির তরফে প্রার্থী ঘোষণা করে দেওয়া হয়েছে, তিনি এখনো রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপরেই ভরসা রাখছেন।

সব জল্পনার আবাসন ,নোয়াপাড়া,উলুবেড়িয়ায় বিজেপি তাদের প্রার্থী ঘোষণা করলো

আর এই ঘটনার পর কার্য্য সব দায় মুকুল রায় ও কৈলাশ বিজয়বর্গীয়ের উপর চাপিয়ে দিয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি দাবি করেছেন তিনি মঞ্জু দেবীকে চিনতেনই না। দলের তরফে মুকুল বাবু বা কেন্দ্রীয় নেতৃত্ত্ব ব্যাপারটা দেখছিল। ফলে পুরো ব্যাপারটা নিয়ে রহস্য আরো বেড়েছে, বিধানসভা উপনির্বাচনে কে প্রার্থী হতে চলেছেন তা যদি রাজ্য সভাপতি না জানেন তা বড় রহস্য বলেই মেনে নিচ্ছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। অন্যদিকে কলকাতার এক নামি সংবাদপত্রের দাবি, এই বিষয়ে তাঁদের তরফে কৈলাশ বিজয়বর্গীয়র সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে, তিনি প্রথমে আকাশ থেকে পড়েন। ওই সংবাদপত্রের সাংবাদিককেই উল্টে জিজ্ঞাসা করেন, কে ওনার নাম ঘোষণা করেছে? দলের সর্বভারতীয় নির্বাচন কমিটি প্রেস রিলিজ দিয়েছে শুনে তিনি সংক্ষিপ্ত প্রতিক্রিয়া দেন, ভুল হয়ে গিয়েছে। কৈলাশ বিজয়বর্গীয়র এই প্রতিক্রিয়াতেও রহস্য বাড়ছে, দলের কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক, কার্যত যাঁর সঙ্গে আলোচনার পরেই ঠিক হয় মঞ্জুদেবী প্রার্থী হচ্ছেন, তাঁকে অন্ধকারে রেখেই প্রার্থী ঘোষণা হয়ে গেল! তার থেকেও বড়কথা, মঞ্জু বসুকে দলের প্রাথমিক সদস্য পর্যন্ত করা হয় নি অথচ নজিরবিহীনভাবে তাঁর নাম প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা হয়ে গেছে! সব মিলিয়ে নোয়াপাড়ায় বিজেপির প্রার্থী নিয়ে শুধুই জন্ম দিচ্ছে অগাধ রহস্যের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!