এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > নিপা ভাইরাসের আক্রান্তদের বাঁচাতে ঝাঁপালো যোগীর রাজ্যের অভিযুক্ত ডাক্তার

নিপা ভাইরাসের আক্রান্তদের বাঁচাতে ঝাঁপালো যোগীর রাজ্যের অভিযুক্ত ডাক্তার

এই মুহূর্তে খবরের শিরোনাম জুড়ে রয়েছে কেরলের “কোঝিকড়ে জেলার নিপা ভাইরাস” আর এই ভাইরাস থেকে নিজের রাজ্যকে বাঁচাতে উদ্ব্যগী স্বয়ং সেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পিনায়ারী বিজয়ন,তিনি সকল চিকিৎসককে অনুরোধ জানিয়েছেন “যে সমস্ত প্রতিভাবান চিকিৎসক এগিয়ে এসেছেন,বা এগিয়ে আসতে চান,তাদের উৎসাহ দেখে খুবই খুশি হবে রাজ্য সরকার”। ইতিমধ্যে এই ভাইরাসের জেরে 10 জনের প্রাণ গেছে,আর যাতে কারোর প্রাণ না কেড়ে নেয় এই ভাইরাস তার জন্যই এইরকম মানবিক আনোরোধ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

আর এই অনুরোধে সাড়া দিয়ে এগিয়ে আসলেন উত্তরপ্রদেশের বিআরডি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু মৃত্যুতে অভিযুক্ত চিকিৎসক ডঃ কফিল খান, এই অভিযোগের জেরে তিনি জেলও গেছিলেন, এই গোটা ঘটনা জানার পরে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন কফিল খানের মতন এইরকম স্বেচ্ছাসেবী চিকিৎসকরা নিপা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়তে এগিয়ে আসুক। তিনি তাঁর ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন “এইরকম বহু চিকিৎসক রয়েছেন যারা নিজেদের স্বাস্থ্য ও জীবনের কথা না ভেবে মানুষের সেবার জন্য এগিয়ে এসেছেন ,ডঃ কাফিল খান এদের মধ্যে অন্যতম”। কাফিল খান সহ যারা কাজ করতে চান তাঁদের ওই জেলার মেডিকেল কলেজের সুপারের সাথে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। কাফিল খান জানায় গত বছর আগস্টে অক্সিজেনের অভাবে যে 63 টি শিশুর মৃত্যু ঘটে ,সেই মামলায় তাঁকে ভুলবশত ফাঁসিয়ে দেওয়া হয় । তিনি তাঁর ফেসবুক পোস্টে কেরলের মুখ্যমন্ত্রীকে অনুরোধ করেছেন যে “তাকে সাধারণ মানুষের জীবন বাঁচানোর কাজে নিয়োগ করা হোক” । এছাড়াও তিনি মৃত নার্স লিনির কাজের ভূয়সী প্রশংসা করে শোকবার্তাও পাঠিয়েছেন । লিনির কাজে অনুপ্রাণিত হয়ে তিনি নিপা ভাইরাস মুক্ত করতে চান । তিনি তার পোস্টে লেখেন ‘সিস্টার লিনি আমায় অনুপ্রেরণা জুগিয়েছেন,এবং আমার ইচ্ছা যে মানুষের সেবা করতে গিয়েই যেনো আমার মৃত্যু হয়’ । এতো কিছুর পরেও কি ওনার নাম থেকে শিশু মৃত্যুর কলঙ্ক মুছবে ? সেটাই এখন দেখার ।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!