এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > জ্যোতিপ্রিয় কি এবার দলে কোণঠাসা হতে চলেছেন! জোর জল্পনা

জ্যোতিপ্রিয় কি এবার দলে কোণঠাসা হতে চলেছেন! জোর জল্পনা

এককালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অত্যন্ত গুডবুকে ছিলেন তিনি। কিন্তু লোকসভা নির্বাচনে উত্তর 24 পরগনা জেলার দায়িত্বে থাকা রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক তার সংগঠনের জোরে এই জেলার সব কটা আসন নিজেদের দখলে আনতে পারেননি। তবুও তৃণমূল নেত্রী তার ওপর ভরসা রেখেছিলেন।

কিন্তু লোকসভা নির্বাচনের পর থেকে একদা দক্ষ সংগঠক হিসেবে পরিচিত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অত্যন্ত কাছের জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক ওরফে বালু নিজের জেলায় ক্ষমতা হারাতে থাকেন। বঙ্গ বিজেপির চাণক্য মুকুল রায়ের ম্যাজিকে উত্তর 24 পরগনার একাধিক পৌরসভার রং গেরুয়া হয়ে যায়। কিছুদিন আগেই তৃণমূল ভবনে বৈঠকে উত্তর 24 পরগনায় জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক সভাপতি থাকলেও বিভিন্ন বিধানসভা ভিত্তিক বিভিন্ন জনকে দায়িত্ব দিয়েছে তৃণমূল।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

পরিস্থিতি চাঞ্চল্যকর মোড় নেয় এবার সেই জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকেরই জামাই যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক অভ্র সেন বিজেপিতে যোগ দেওয়ায়। তৃণমূলের এই হেভিওয়েট মন্ত্রীর ভূমিকা নিয়ে উঠতে শুরু করল প্রশ্ন। অনেকে বলছেন, এবার হয়ত দলীয়স্তরে কোণঠাসা হয়ে যেতে পারেন উত্তর 24 পরগনা জেলা তৃণমূল সভাপতি তথা খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। কেননা লোকসভা নির্বাচনের পরবর্তী সময়ে এই জেলাতেই সব থেকে বেশি ভাঙন ঘটেছে তৃণমূলের। কিন্তু তারপরও দল তার উপর ভরসা রাখলেও এবার নিজের পরিবারেই অন্যতম সদস্যের বিজেপিতে যোগদান আটকাতে না পারায় জ্যোতিপ্রিয়বাবুর ভূমিকায় বিরক্ত দলের শীর্ষ নেতৃত্ব তৃণমূলের একটা মহল থেকে এমনটাই দাবি করা হচ্ছে।

একাংশের মতে, মুকুল রায় বিজেপিতে চলে গেলেও তার ছেলে বিজেপিতে না যাওয়ায় মুকুল রায়ের নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন তৃণমূলের অনেকে। আর এবার তৃণমূলের জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক তার জামাইয়ের বিজেপিতে যোগদান আটকাতে না পারায় তার রাজনৈতিক বিচক্ষণতা নিয়ে কেন প্রশ্ন তোলা হবে না!

বিশেষজ্ঞদের একাংশ বলছেন, যত দিন যাচ্ছে দলের ভাঙ্গন রোধ করতে না পারায় তৃণমূল নেত্রীর চোখে অনেক নেতাই ব্ল্যাকলিস্টেড হয়ে থাকছেন। ফলে এই সমস্ত নেতাদের মধ্যে এখন তৃণমূল নেত্রীর প্রিয় ভাই উত্তর 24 পরগনা জেলা তৃণমূল সভাপতি তথা খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক ওরফে বালুও পড়েন কিনা, এখন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!