এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > দিলীপ ঘোষ বিজেপির সভাপতি থাকলে আমাদের লাভ, আমরা চাই উনি আরও ২০ বছর থাকুন – জানিয়ে দিল তৃণমূল

দিলীপ ঘোষ বিজেপির সভাপতি থাকলে আমাদের লাভ, আমরা চাই উনি আরও ২০ বছর থাকুন – জানিয়ে দিল তৃণমূল

রাজ্য রাজনীতিতে বর্তমানে দুই যুযুধান প্রতিপক্ষের নাম তৃণমূল কংগ্রেস ও ভারতীয় জনতা পার্টি। তৃণমূল বিজেপিকে কেন্দ্র থেকে ক্ষমতাচ্যুত করতে চায় – আবার উল্টোদিকে বিজেপি তৃণমূলকে রাজ্য থেকে ক্ষমতাচ্যুত করতে চায়। ফলে, স্বাভাবিকভাবেই দুই দলের চাপান উতোর থাকবে। কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেসের হেভিওয়েট নেতা তথা রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক সবাইকে চমকে দিয়ে জানালেন, দিলীপ ঘোষ বিজেপির সভাপতি থাকলে আমাদের লাভ। আমরা চাই, দিলীপ ঘোষ আরও ২০ বছর সভাপতি থাকুন!

প্রসঙ্গত, গত ৫ ই জানুয়ারী রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্মদিন ছিল। সেইদিন, সাংবাদিক বৈঠকে সবাইকে চমকে দিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, মুখ্যমন্ত্রীর সুস্বাস্থের কামনা করার পাশাপাশি, তাঁকে দেশের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেখার ইচ্ছাপ্রকাশ করেন। চমকে যাওয়া সাংবাদিকরা ভালো করে প্রশ্ন করলে দিলীপবাবু জানান, আমরা প্রণববাবুর মাধ্যমে প্রথম বাঙালি রাষ্ট্রপতি পেয়েছি – জ্যোতিবাবুকে অল্পের জন্য বাঙালি প্রধানমন্ত্রী হিসাবে পাই নি। তাই প্রথম বাঙালি প্রধানমন্ত্রী হিসাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই সবথেকে যোগ্য!

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আর স্বাভাবিকভাবেই এই নিয়ে তীব্র বিতর্ক শুরু হয়। ফলে এর ২৪ ঘন্টা কাটতে না কাটতেই দিলীপবাবু জানান, তিনি আসলে কটাক্ষের ছলে তৃণমূলনেত্রীকে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার কথা বলেছেন। আর এইসবের পরিপ্রেক্ষিতে আজ উত্তর ২৪ পরগনা জেলার হাবড়া ১ নম্বর ব্লকে ব্রিগেডের প্রস্তুতি সভায় রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয়বাবু বলেন, দিলীপ ঘোষ একটা বদ্ধ পাগল! কেন যে ওঁর দল ওর চিকিত্‍সার ব্যবস্থা করছে না, জানি না। সব সময় ভুলভাল কথা বলেন। কখনও আমাদের মেরে ফেলছেন, আবার কখনও আমাদের জীবিত করছেন। দিলীপ ঘোষ বিজেপির সভাপতি থাকলে আমাদের লাভ। আমরা চাই, দিলীপ ঘোষ আরও ২০ বছর সভাপতি থাকুন!

এদিনের সভায় হাবড়ার বিধায়ক ও তৃণমূলের উত্তর ২৪ পরগনার জেলা সভাপতি তথা খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের হাত ধরে সিপিএম ও বিজেপি থেকে ২৭ জন নেতা সহ প্রায় আড়াইশো কর্মী-সমর্থক তৃণমূলে যোগদান করেন বলে জানা গেছে। সভার শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জ্যোতিপ্রিয়বাবু তীব্র কটাক্ষ করেন মুকুল রায়কেও। তিনি বলেন, মুকুল রায় তো আগে আমাদের দল করত – আমি ওর স্ট্যান্ডার্ড জানি। ওতো এখন মাইনাসের খাতায়! নিজে জনগনের ভোটে কোনও দিন জিতে আসতে পারেনি। ক্ষমতা থাকলে একটা বুথ থেকে জিতে আসুক।

Top
error: Content is protected !!