এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মুখ্যমন্ত্রী আর ভারতী ঘোষকে নিয়ে ফের বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন জয় ব্যানার্জী

মুখ্যমন্ত্রী আর ভারতী ঘোষকে নিয়ে ফের বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন জয় ব্যানার্জী

নদীয়ার করিমপুর বিধানসভা কেন্দ্রে বিজেপির জনসভা মঞ্চ থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে প্রাক্তন আইপিএস অফিসার ভারতী ঘোষের সম্পর্কের বর্তমান স্থিতি নিয়ে নানা মন্তব্য ,প্রশ্ন – পাল্টা প্রশ্ন উঠে এলো । বক্তা বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায় ৷জয় বাবু বললেন , ‘‘কাজ থাকলে পাশে বোস৷ কাজ ফুরলেই ভারতী ঘোষ? এটা এখন খুব চলছে পশ্চিমবঙ্গে৷ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মা ডেকে ছিলেন ভারতী ঘোষ৷ এবার মা-মেয়ের তাণ্ডব চলছিল পশ্চিম মেদিনীপুরে৷’’

ভারতী দেবীর পেন-ড্রাইভ প্রসঙ্গে জয় বাবু জানালেন , ‘‘এমনি টাকা খোঁজার জন্য ওঁরা দৌড়চ্ছে না৷ একটা পেনড্রাইভ খুঁজছে ওঁরা৷ সেই পেনড্রাইভে তৃণমূলের অনেক কুকীর্তি লোকানো আছে৷ সেইটা খোঁজবার জন্য আজকে ঘুরে বেড়াচ্ছে৷ আজকে মানলাম ভারতী ঘোষ অনেক টাকা করেছে, কোটি কোটি টাকা৷ আর একটা কথা আছে, অন্যায় যে করে এবং অন্যায় যে সহে, সবাই সমান দোষে দোষী হয়৷ আজকে যদি ভারতী ঘোষ দু’নম্বর টাকা কামিয়ে সোনা কামিয়ে যে রোজকার করেছে, মা আর পিসতুতো ভাই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সবই জানতো৷ তাহলে ওরা তখন বাধা দিল না কেন? আর ভারতী ঘোষের যদি এত টাকা হয় যারা ওকে লালন পালন করেছিল তাদের কত টাকা এবার ভেবে দেখুন তো৷’’
এখানেই শেষ নয় , এরপর রাজ্যের শাসক তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আনেন ও ৩৩ বছরের বাম শাসনের সাথে দুর্নীতির উদাহরণ সহযোগে ধারাবাহিক পর্যালোচনা করে জয় বাবু বললেন , ‘‘তৃণমূল একটা কথাই বলে, সিপিএমের যত দুর্নীতি, যত সন্ত্রাস আমরা অনুসন্ধান করব৷ আমরা তদন্ত করব৷ আজকে একটাও তদন্ত হয়েছে বন্ধু? আপনাদের মনে আছে কিনা জানি না৷ জ্যোতি বাবুর এক অকাল কুষ্মাণ্ড ছেলে ছিল চন্দন বসু৷ পশ্চিমবঙ্গের অর্ধেক টাকা সে লুট করে নিয়ে চলে গিয়েছে৷ এখন সে কোথায় আছে জানি না৷ কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একাধিকবার বলেছিল যে আমরা যেদিন ক্ষমতায় আসব চন্দন বসুকে আমরা কোমরে দড়ি পরাব৷ কী করে পরাবে বন্ধু? চোর কী ডাকাতের অনুসন্ধান করতে পারে? নাকি একটা ডাকাত চোরের সন্ধান করতে পারে ?’’

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!