এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ফের বিজেপিতে বড় ভাঙ্গন, জোর অস্বস্তি গেরুয়া শিবিরে !

ফের বিজেপিতে বড় ভাঙ্গন, জোর অস্বস্তি গেরুয়া শিবিরে !

 

লোকসভা নির্বাচনের পর বিজেপিতে অন্য দল থেকে যোগদানের হিড়িক পরে গিয়েছিল। কিন্তু বর্তমানে পরিস্থিতি পাল্টাতে শুরু করেছে। এবার বিজেপি ছেড়ে প্রচুর কর্মীর তৃণমূলে যোগদানে চরম অস্বস্তিতে পড়ল গেরুয়া শিবির। সূত্রের খবর, সোমবার মেদিনীপুর শহরের কেশিয়াড়ির একাধিক বিজেপি নেতা ঘাসফুল শিবিরে নাম লেখান। যাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন জেলা তৃণমূল সভাপতি অজিত মাইতি।

প্রসঙ্গত, এতদিন বাঘাশ্রী পঞ্চায়েতটি বিজেপির দখলে ছিল। কিন্তু এদিন এখানকার বিজেপির উপপ্রধান সহ বেশ কিছু সদস্য তৃণমূলে যোগ দেওয়াতে বিজেপির এই পঞ্চায়েত হাতছাড়া হল বলেই মত বিশেষজ্ঞদের। জানা যায়, এদিন বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেন এই বাঘাশ্রী পঞ্চায়েতের উপপ্রধান সুকুমার সিং, সীতা প্রামাণিক, চন্দনা রায়, পাখি রাউত সহ অন্যান্যরা। আর বিজেপি ছেড়ে এই বিপুল সংখ্যক সদস্যের ঘাসফুল শিবিরে নাম লেখানোয় প্রবল অস্বস্তিতে পদ্ম শিবির। তবে বাড়তি অক্সিজেন পেয়েছে তৃনমূল। তবে এই দলবদলের ব্যাপারে গুরুত্ব দিতে নারাজ ভারতীয় জনতা পার্টি।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে মেদিনীপুর সাংগঠনিক জেলা বিজেপির সভাপতি সমিত দাস বলেন, “ওখানে পঞ্চায়েত সদস্য দলবিরোধী কাজ কর্ম করছিলেন। বিভিন্ন কাজে টাকা আত্মসাতের চেষ্টা হচ্ছিল। ওরা তা করতে পারেনি। তাই অন্য দলে চলে গিয়েছে।” তবে বিজেপি সভাপতি যে কথাই বলুন না কেন, গোটা ঘটনায় বিজেপি যে প্রবল ব্যাকফুটে পড়েছে, সেই ব্যাপারে নিশ্চিত রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

আপনার মতামত জানান -
Top