এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > এবার বিজেপির ঘরে বড়সড় হানা দিলো তৃণমূল, জেনে নিন

এবার বিজেপির ঘরে বড়সড় হানা দিলো তৃণমূল, জেনে নিন

সদ্যসমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে উত্তরবঙ্গে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস একটি আসনও দখল করতে পারেনি। সেদিক থেকে উত্তরবঙ্গের আটটি লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যে সাতটি লোকসভা কেন্দ্রই দখল করেছে বিজেপি। পাশাপাশি সারা রাজ্য থেকে গেরুয়া শিবির একধাক্কায় আঠারোটা আসন নিজেদের দখলে রেখেছে।

আর বাংলায় বিজেপির এই ভালো ফলাফলের পরই দিকে দিকে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের অন্দরে ভাঙ্গন দেখা দিতে শুরু করে। বিভিন্ন জায়গায় কাউন্সিলর থেকে বিধায়ক এবং হেভিওয়েট নেতাকর্মীরা তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেন। তবে এবার যেন উলটপুরাণ হতে শুরু করল।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, আলিপুরদুয়ার জেলা তৃণমূলের সভাপতি মৃদুল গোস্বামীর হাত ধরে এবার দুই নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের বেশকিছু মানুষ বিজেপি ছেড়ে যোগ দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসে। আর এতেই কিছুটা হলেও এখন উজ্জীবিত ঘাসফুল শিবির। কিন্তু হঠাৎ করেই এই উলটপুরাণ কেন! তাহলে কি বিজেপির প্রতি মানুষের মোহভঙ্গ হতে শুরু করেছে!

এই প্রসঙ্গে তৃণমূলের দাবি, মানুষ লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে ভোট দিলেও তারা তাদের আসল রূপ দেখে নিয়েছে। হিংসা, সন্ত্রাস ছাড়া বিজেপির অন্য কোন কাজ নেই। আর তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নের প্রতি আস্থা রেখে আবারও সকলে তৃণমূলে যোগদান করছেন।

তবে তৃণমূলের এই দাবিকে নস্যাৎ করে দিয়েছে বিজেপি নেতৃত্ব। তাদের পাল্টা দাবি, ভুয়ো যোগদান করিয়ে আর যাই হোক, মানুষকে ভুল বোঝানো যাবে না। মানুষ বিজেপির সাথেই রয়েছে। তবে আলিপুরদুয়ার জেলায় এদিনকার এই দলবদল যে সেই জেলার রাজনৈতিক মানচিত্রে বড়সড় প্রভাব ফেলতে চলেছে, সেই ব্যাপারে নিশ্চিত রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top