এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > যোগীর বক্তব্যে ফের বিতর্ক বাড়ল, তোপ দাগলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

যোগীর বক্তব্যে ফের বিতর্ক বাড়ল, তোপ দাগলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

গত 14 ই ফেব্রুয়ারি ভারতের জম্মু কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় পাক মদতপুষ্ট জঙ্গী সংগঠনের পক্ষ থেকে চালানো নৃশংস হামলায় দেশের অসংখ্য সেনা জওয়ানের মৃত্যুর পরই এই ঘটনা নিয়ে যাতে কেউ রাজনীতি না করে, তার জন্য কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপির পক্ষ থেকে প্রায় প্রতিটি স্তরের নেতা নেত্রীরা আবেদন জানালেও এবার ভোটের মুখে এই সেনাদের নিয়েই মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়ে পড়লেন উত্তরপ্রদেশের বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

সূত্রের খবর, রবিবার উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদের একটি সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে যোগী আদিত্যনাথ বলেন, “কংগ্রেসের লোকেরা জঙ্গিদের বিরিয়ানি খাওয়াত, আর মোদি সেনাদের উদ্দেশ্যে গুলি গোলা ছোড়ে। এটাই পার্থক্য। যেটা কংগ্রেসের জন্য অসম্ভব ছিল, সেটা মোদিজীর জন্য সম্ভব হয়েছে।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

আর যোগী আদিত্যনাথের এহেন মন্তব্যকে কেন্দ্র করেই এবার তৈরি হয়েছে তীব্র বিতর্ক। কেননা যে কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপির পক্ষ থেকে বারে বারে সেনাদের নিয়ে কোনোরূপ রাজনীতি করা উচিত নয় বলে জানানো হয়েছিল, সেখানে সেই বিজেপিরই হেভিওয়েট মুখ্যমন্ত্রী উত্তরপ্রদেশের যোগী আদিত্যনাথ কেন সেই “সেনাদের সম্মান রক্ষার্থে একমাত্র মোদীজিই সঠিক দায়িত্ব পালন করেছেন” বলে বিতর্কিত মন্তব্য করলেন!

এদিন এই প্রসঙ্গে উত্তরপ্রদেশের যোগী আদিত্যনাথের মন্তব্যের বিরুদ্ধে টুইট করে তৃণমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “যেভাবে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী ভারতীয় সেনাকে মোদিজী কি সেনা বলেছেন, সেটা সত্যিই লজ্জাজনক। সেনারা এই দেশের সম্পদ। তাদের উদ্দেশ্যে এহেন মন্তব্যের বিরুদ্ধে সকল মানুষের প্রতিবাদ করা উচিত।”

অন্যদিকে সেনাবাহিনী কারও একার সম্পত্তি নয়। তাই এই ভাবে ব্যক্তিগত অপমান করাটা সত্যিই লজ্জাজনক বলে সেই যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে সুর চরাতে দেখা গেছে কংগ্রেস মুখপাত্র প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদীকেও। সব মিলিয়ে এবার ভোটের আগে উত্তরপ্রদেশের হেভিওয়েট বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের মন্তব্যকে ঘিরে রাজনৈতিক মহলে তীব্র সোরগোল হতে শুরু করল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!