এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসই পরাজয়ের বড় কারণ, বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি যোগী আদিত্যনাথের

অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসই পরাজয়ের বড় কারণ, বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি যোগী আদিত্যনাথের

মুখ্যমন্ত্রী পদের দায়িত্ব ভারে ও রাজ্য রাজনীতির চাপে সঙ্কুচিত করতে হয়েছে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের ধর্মীয় আচার আচরণ। উল্লেখ্য মুখ্যমন্ত্রী পদে আসার আগে তিনি নয় দিনই গোরক্ষপুরে থেকে উপবাস-পুজো করতেন। কিন্তু এবার রাজ্যসভার নির্বাচনে দলীয় প্রচারের তাগিদে তাঁর নবরাত্রির উপবাস শুরু প্রথম চার থেকে পাঁচ দিন তাঁকে থাকতে হবে লক্ষ্ণৌ তে। নিজের কেন্দ্র গোরক্ষপুর উপ নির্বাচনে বিজেপি প্রার্থীর পরাজয়ের প্রসঙ্গে যোগী এদিন সংবাদ মাধ্যম কে বললেন , ”দলের ভোট ব্যাঙ্ক অটুট এবং এই ফলাফল আদৌ চার বছরের মোদী সরকারের বিরুদ্ধে রায় নয়। এ সপা-বসপা সুবিধাবাদী জোটের জয়।” একই সঙ্গে এবিপি-নিউজের একটি অনুষ্ঠানে তিনি এই কথা স্বীকারও করে নিয়েছেন যে, ”অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসই পরাজয়ের বড় কারণ। দল পরাজয় থেকে শিক্ষা নিয়েছে।” আগামী ২৩ মার্চ ১০টি আসনে রাজ্যসভার নির্বাচন হবে উত্তরপ্রদেশে। আটটি আসনে বিজেপি প্রার্থীর জয় নিশ্চিত। কিন্তু বিজেপি প্রার্থী দিয়েছে ৯টি আসনে। ফলে বাড়তি আসন জিতে দেখাতে হবে যোগীশিবিরকে। উত্তরপ্রদেশে একটি রাজ্যসভা আসনে জিততে গেলে ৩৭ জন বিধায়কের ভোট প্রয়োজন। সেখানে বিজেপির আট প্রার্থীকে প্রথম পছন্দের ভোট দেওয়ার পর যোগীর হাতে থাকছে ২৮টি ভোট। এখন প্রয়োজন আরও ন’টি ভোট। বিজেপি আশা করেছিল, এর মধ্যে চারটি ভোট পাওয়া যাবে শরিক এসবিএসপি-র কাছ থেকে। কিন্তু এদিন যোগী মন্ত্রিসভার সদস্য ও শরিক নেতা ওমপ্রকাশ রাজভড় একপ্রাকার নালিশের সুরে বললেন, ”উপনির্বাচন বা রাজ্যসভা-কোনও নির্বাচনেই প্রার্থী দেওয়ার আগে শরিক দলের সঙ্গে আলোচনায় বসছে না বিজেপি। তাই আমরাও ঠিক করিনি, কাকে ভোট দেব।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!