এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ১২ বছর পরে অবশেষে রাজ্যে বড়সড় নিয়োগ হতে চলেছে অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রগুলিতে – জানুন বিস্তারিত

১২ বছর পরে অবশেষে রাজ্যে বড়সড় নিয়োগ হতে চলেছে অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রগুলিতে – জানুন বিস্তারিত

এক যুগ প্রতিক্ষার অবসান ঘটিয়ে ১৯’এর লোকসভা ভোটের মুখে অঙ্গনওয়ারী নিয়োগ নিয়ে আশার বাণী শোনাল রাজ্য সরকার। আইসিডিএস সেন্টার বা অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র পরিচালনার দায়িত্বে থাকা ৩৩৭৬ টি সুপারভাইজার পদ শূন্য হয়ে রয়েছে ২০০৭ সালের বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের জামানা থেকে।

এবার সেই পদগুলোই পূরণ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে প্রশাসনের তরফ থেকে৷ গতকাল রাজ্য মন্ত্রীসভার বৈঠকে এমনটাই জানিয়ে দিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই নিয়োগ সম্পন্ন হলে আইসিডিএস সেন্টার এবং আওতাধীন অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রগুলির কাজকর্মে আরও গতি আসবে বলে নবান্নে সাংবাদিক সম্মেলনে দাবি করেছেন মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য।

তিনি জানালেন,আগামী আগামী ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবসের আগে সুপারভাইজার পদগুলি পূরণ করার যে সিদ্ধান্ত নিলেন মুখ্যমন্ত্রী, তাতে নারী শক্তির বিকাশে রাজ্য আরো এক ধাপ এগিয়ে যাবে। চন্দ্রিমা দেবীর সূত্র থেকে আরো জানা গিয়েছে,শূন্যপদ পূরণের জন্যে সরাসরি নিয়োগের পাশাপাশি বিভাগীয় অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীদের মধ্যে থেকে বেশ কয়েকজনকে সুপারভাইজার পদে উন্নীত করে তাঁদের কাজে উৎসাহ যোগানো হবে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

সরাসরি আবেদনকারীদের একদিকে যেমন স্নাতক ডিগ্রি থাকতে হবে তেমনি সমাজসেবার কাজের পারদর্শিতাও জরুরি। এই মুহূর্তে সুপারভাইজার পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে পরীক্ষার নতুন কিছু নিয়মও তৈরি করা হচ্ছে। প্রসঙ্গত,বর্তমানে রাজ্যে প্রায় ১ লক্ষ ১৭ হাজার অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র রয়েছে।

এছাড়া গতকালের মন্ত্রীসভার বৈঠকে উত্তরাধিকার সূত্রে প্রাপ্ত পারিবারিক জমি-বাড়ির মিউটেশনের ক্ষেত্রেও বড়সড় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে বলেও জানান চন্দ্রিমা দেবী। এ ব্যাপারে তিনি জানান,আগের নিয়ম অনুযায়ী বাবা, মা অথবা পরিবারের অন্য কারও কাছ থেকে উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া জমি অথবা জমির উপর তৈরি বাড়ির ক্ষেত্রে মালিকানা পরিবর্তনের সময় মিউটেশন ফি দিতে হত। কিন্তু এবার সেই পুরানো নিয়মটাই বদলে ফেললেন মুখ্যমন্ত্রী। এবার থেকে জমি কেনা বা বাড়ি বানানোর ক্ষেত্রে কোনো মিউটেশন ফি দেওয়া লাগবে না। তবে উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া জমি কিংবা জমির উপর থাকা বাড়ির মিউটেশন করতে হবে। তাতে শুধু কোনো ফি লাগবে না।

মন্ত্রীসভার বৈঠকে রাজ্যের ২৪ টি জেলায় (পুলিশ জেলা সহ) পূর্ণাঙ্গ সাইবার ক্রাইম সেন্টার গড়ার সিদ্ধান্তে অনুমোদন দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এছাড়া সিআইডি’র তরফ থেকেও শিলিগুড়িতে আরো একটা সাইবার ক্রাইম সেন্টার গড়ে তোলার সিদ্ধান্তে সম্মতি দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। চন্দ্রিমা দেবীর সূত্র থেকে আরো জানা গিয়েছে,এই সব সেন্টারের জন্যে ২৪৮ টি নতুন পদ তৈরি করা হয়েছে। এছাড়াও ২৪ জন সাইবার কনস্যালট্যান্ট নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বীরভূমে সোলার পাওয়ার প্ল্যান্ট তৈরির জন্য রাজ্য বিদ্যুৎ উন্নয়ন নিগমকে বার্ষিক এক টাকা খাজনার বিনিময়ে ৫০ একর জমি দেওয়ার সিদ্ধান্তেও অনুমোদন মিলেছে মন্ত্রিসভায়।

Top
error: Content is protected !!