এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > জেলা সভাপতির পদত্যাগ চেয়ে হাজার-হাজার কর্মীর বিক্ষোভ! সরগরম বিজেপির অন্দরমহল

জেলা সভাপতির পদত্যাগ চেয়ে হাজার-হাজার কর্মীর বিক্ষোভ! সরগরম বিজেপির অন্দরমহল

সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনের পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃণমূল বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছে। অন্যদিকে রাজ্য বিজেপি প্রবলভাবে নির্বাচনী প্রচার চালালেও রাজ‍্যে উপ নির্বাচন হওয়া কালিয়াগঞ্জ, করিমপুর এবং খড়্গপুর- কোথাও দাঁত ফোটাতে পারেনি। ইতিমধ্যে বিজেপির অন্দরে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রবলভাবে প্রকাশ পেয়েছে। উপ-নির্বাচনের ফল বেরোনোর পর রাজ্য বিজেপির অন্দরে চলছে মন্ডল সভাপতির নির্বাচন। আর এই নির্বাচনকে ঘিরে জায়গায় জায়গায় কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে অসন্তোষ দানা বাঁধে। এই অসন্তোষ গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের আকার ধারণ করেছে এবং বিভিন্ন জায়গায় গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব হাতাহাতিতে পৌঁছে গেছে প্রকাশ্যে।

সম্প্রতি বিজেপির মন্ডল সভাপতি নির্বাচনকে ঘিরে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রবল আকার ধারণ করে। আলিপুরদুয়ারে উপনির্বাচনে তিনটি বিধানসভায় শোচনীয় পরাজয়ের পর বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব ক্রমশ প্রকাশ হয়ে পড়ছে। এদিন আলিপুরদুয়ারে কালচিনির সাঁতালি ময়দানে বিজেপির জেলা সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মার পদত্যাগের দাবিতে বিজেপির বিপুল কর্মী সমর্থকরা বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। দলের এই বিক্ষোভে নেতৃত্ব দেন হাসিমারা 9 নম্বর মণ্ডলের সদ্য অপসারিত সভাপতি সন্দীপ এক্কা। প্রসঙ্গত এবার আলিপুরদুয়ারের 9 নং মন্ডলের সভাপতি সন্দীপ এক্কাকে সরিয়ে সে জায়গায় সভাপতি করা হয় প্রদীপ কুজুরকে। তারপরই আলিপুরদুয়ারে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব মাথাচাড়া দিয়েছে। ফলস্বরূপ নতুন মন্ডল সভাপতির বিরুদ্ধে কিছুদিন আগেই অনাস্থা প্রকাশ করে বিক্ষোভ দেখান দলের কর্মী-সমর্থকরা তথা সন্দীপ এক্কার অনুগামীরা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিন আলিপুরদুয়ারের মন্ডল সভাপতির নির্বাচনকে ঘিরে বিক্ষোভ এর বিষয়ে সন্দীপবাবু বলেন, বুথ ও মন্ডল স্তরের সাথে আলোচনা না করেই মন্ডল সভাপতি নির্বাচন করেন জেলা থেকে গঙ্গাপ্রসাদ। তাঁর পছন্দের মন্ডল সভাপতির নাম জেলা নেতৃত্বের কাছে পাঠাচ্ছেন। সেই কারণে দলের কর্মী-সমর্থকরা জেলা সভাপতির অপসারণ চাইছে। অন্যদিকে জেলা সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ বাবু অবশ্য এ প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, যাবতীয় সিদ্ধান্ত মন্ডল স্তরের কর্মীদের মতামত নিয়েই গৃহীত হয়েছে। তাই অযথা এ ধরনের গুঞ্জন এর কোন মানে নেই। যা ঘটছে সেগুলো বিচ্ছিন্ন ঘটনা। তবে মন্ডল সভাপতি নির্বাচনকে ঘিরে এখনো পর্যন্ত কোন গণ্ডগোল হয়নি বলে তিনি দাবি করেন।

সূত্রের খবর, আলিপুরদুয়ারে বিজেপির অন্দরমহলের এই গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের কারণে রাজনৈতিক মহলে চরম উত্তেজনা ছড়িয়েছে। এই ঘটনায় রাজ্য নেতৃত্বের পক্ষ থেকে এখনো পর্যন্ত কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। তবে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের দাবি, বিজেপি দলের অন্দরে মাথাচাড়া দেওয়া গোষ্ঠীদ্বন্দ্বকে যদি এখনই সমূলে বিনাশ করতে না পারে, তাহলে পরবর্তী কালে রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে বিজেপি তার স্থান হারাতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। আপাতত গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নিয়ে বিজেপির অন্দরমহলেও চরম অস্বস্তি শুরু হয়েছে। উপ-নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর এই গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব অতিরিক্ত মাত্রায় বেড়ে যাওয়ায়, তা বিজেপি শিবিরকে যথেষ্ট চিন্তিত করে তুলেছে। আপাতত সম্পূর্ণ পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব।

 

আপনার মতামত জানান -
ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!