এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুরুলিয়া-ঝাড়গ্রাম-বাঁকুড়া > জঙ্গলমহল নিয়ে কি শাসকের চিন্তা অব্যাহত? পদাধিকারীদের নাম এল মুখবন্ধ খামে

জঙ্গলমহল নিয়ে কি শাসকের চিন্তা অব্যাহত? পদাধিকারীদের নাম এল মুখবন্ধ খামে

এবার পঞ্চায়েত নির্বাচনে ঘাসফুল শিবির সারা রাজ্যে নিজেদের দাপট অব্যাহত রাখলেও ব্যাতিক্রম ছিল জঙ্গলমহলের জেলাগুলি। কিন্তু পঞ্চায়েত বা পঞ্চায়েত সমিতিতে বিজেপি থাবা বসালেও জেলাপরিষদ গেছে সেই তৃনমূলের দখলেই।

সূত্রের খবর,  আজই পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পরিষদের সভিধিপতি এবং সহ সভাধিপতি পদে নির্বাচন হবে। আর তার আগেই কে হবেন সভাধিপতি এবং সহকারি সভাধিপতি তা নিয়ে তৈরি হয়েছে জোর জল্পনা। এদিকে আজকের এই শপথগ্রহন অনুষ্টান ঘিরে গোটা মেদিনীপুর শহরে সাজোসাজো রব।

জানা গেছে, এদিনের এই শপথগ্রহন অনুষ্টান যাতে সকলে দেখতে পায় তার জন্য দুটি টিভি স্কিনেরও ব্যাবস্থা করেছে জেলাপরিষদ। তবে এই প্রথম খরচ কমাতে এই শপথগ্রহন অনুষ্টানে কোনো লাঞ্চ প্যাকেটের ব্যাবস্থা করা হয়নি। এদিন জেলাপরিষদের এই শপথ প্রস্তুতি প্রসঙ্গে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পরিষদের সচিব প্রবীর ঘোষ বলেন, “নিয়ম অনুযায়ী এই সভায় জেলাশাসক সহ অনেকেই উপস্থিত থাকবেন। আমরা যথাসাধ্য ব্যাবস্থা গ্রহনের চেষ্টা করছি।” কিন্তু যাদের জন্য এই শপথগ্রহন সেই জেলাপরিষদের সভাধিপতি এবং সহকারি সভাধিপতি নিয়ে তৃনমূলের অন্দরে চলছে তীব্র চাপানউতোর।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

দলীয় সূত্রের খবর, গত সোমবার রাতেই এই দুই পদের জন্য তৃনমূল রাজ্য নেতৃত্বের কাছ থেকে একটি চিঠি পৌছে যায় শাসকদলের জলা নেতৃত্বের কাছে। আজই সাড়ে নটায় এই খাম খুলবে জেলা নেতৃত্ব। এদিন এই প্রসঙ্গে জেলা তৃনমূলের সভাপতি অজিত মাইতি বলেন,”কে হবেন জানি না। দল যা সিদ্ধান্ত নেবে তা সকলে মানতেই বাধ্য।” তবে এখন শেষমূহুর্তে ঠিক কে হয় পশ্চিম মেদিনীপুর  জেলাপরিষদের সভাধিপতি তার জন্য দলনেত্রীর পাঠানো মুখবন্ধ খাম খোলার দিকেই তাকিয়ে সকলে।

Top
error: Content is protected !!