এখন পড়ছেন
হোম > আন্তর্জাতিক > যাদবপুরে মার খেয়ে মাথায় তীব্র যন্ত্রনা! আমেরিকাতে গিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হতে হল বাবুল সুপ্রিয়কে

যাদবপুরে মার খেয়ে মাথায় তীব্র যন্ত্রনা! আমেরিকাতে গিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হতে হল বাবুল সুপ্রিয়কে

রাজনৈতিক হিংসার জের বর্তমানে এতটাই বেড়ে গেছে, সাধারণ মানুষ তো দূর, তা থেকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও রেহাই পাচ্ছেন না। কিছুদিন আগেই ঘটে যায় যাদবপুরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে হেনস্তার ঘটনা। শুধু হেনস্থাই নন, তিনি ছাত্রবৃন্দের হাতে আঘাত প্রাপ্ত হন চরমভাবে। নিগ্রহের শিকার বাবুল সুপ্রিয়কে শেষ পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল এসে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে উদ্ধার করে নিয়ে যান। পরবর্তীকালে বাবুল সুপ্রিয় জানিয়েছেন, এবং দেখাও গেছে বাবুল সুপ্রিয়র ওপর রীতিমত আক্রোশ সহকারে কিল-ঘুসি মারা হয়েছে। যার ফল এখন হাতে নাতে ভুগতে হচ্ছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে।

সম্প্রতি আমেরিকায় গিয়ে বাবুল সুপ্রিয় হসপিটালে ভর্তি হয়েছেন। যাদবপুর কাণ্ডের পর থেকেই বাবুল শারীরিকভাবে কিছুটা অসুস্থ হয়ে পড়েন। সেদিনের ঘটনার পর থেকেই বাবুলের মাথায় ভীষণ যন্ত্রণা শুরু হয়। এম আর আই পরীক্ষায় বেশ কিছু সমস‍্যাও ধরা পড়ে। আর সেই কারণেই বাবুল আমেরিকায় হসপিটালে ভর্তি হয়েছেন। এ নিয়ে তিনি সোশ‍্যাল মিডিয়ায় যাদবপুরের পড়ুয়াদের দায়ী করেছেন।

প্রসঙ্গত, যাদবপুরের একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গেলে বাবুল সুপ্রিয়কে ঘিরে ধরে সেখানকার এসএফআই ছাত্ররা। রীতিমত কিল, চর, ঘুসি এসে পড়ে বাবুলের ওপর। রীতিমতো শারিরীক নিগ্রহ করা হয় বাবুল সুপ্রিয়কে। এমনকি বাবুলের চুল ধরেও টানা হয়। কয়েক ঘন্টা পর রাজ্যপাল এসে বাবুলকে উদ্ধার করেন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এই ঘটনাকে উল্লেখ করে বাবুল ফেসবুকে দাবি করেছেন, এই ঘটনার পর থেকেই তিনি অসুস্থ বোধ করেন মাঝে মাঝেই। বিশেষ করে তাঁর মাথার পেছনে একটি যন্ত্রণা হয়। আর যন্ত্রণা শুরুর পর থেকেই তিনি অসুস্থ বোধ করেন। এই ঘটনায় সম্পূর্ণভাবে যাদবপুরের এসএফআই ও নকশালপন্থী ছাত্র দলকে বাবুল তাঁর অসুস্থতার জন্য দায়ী করেন। প্রমাণ হিসেবে বাবুল তাঁর টেস্ট রিপোর্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলে দেন।

বর্তমানে বাবুল আমেরিকায় ডাক্তারি পর্যবেক্ষণে রয়েছেন। সমগ্র পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে রাজনৈতিক মহল। এই ঘটনায় রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের দাবি, কোন রাজনীতি যখন কারোর প্রাণের ক্ষতি করতে চায়, তখন সেই রাজনীতি আর সুস্থ রাজনীতির মধ্যে পড়ে না। তবে বাবুলের ঘটনাটি পশ্চিমবঙ্গের কোনো রাজনৈতিক দলই সমর্থন করেনি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!