এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব রুখতে লোকসভা-বিধানসভার ঢঙে পঞ্চায়েতের ত্রিস্তরেও ‘দলনেতা’ বসাচ্ছে তৃণমূল

গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব রুখতে লোকসভা-বিধানসভার ঢঙে পঞ্চায়েতের ত্রিস্তরেও ‘দলনেতা’ বসাচ্ছে তৃণমূল

ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত ব্যবস্থায় প্রতি স্তরে দলীয় নেতাদের মধ্যে বিবাদ ক্রমশ প্রকাশ্যে আসছে। যার জেরে বিপাকে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। দলের অন্দরের এই বিবাদের সুষ্ঠ সমাধানে মরিয়া দল। আর সমাধান সূত্র হিসাবে দলের পক্ষ থেকেই বাতলানো হলো নয়া উপায়। তৃণমূল কংগ্রেস এখন পঞ্চায়েতের তিন স্তরেই দলনেতা নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিলো।

উল্লেখ্য এর আগে পঞ্চায়েতের কোনও স্তরেই ‘দলনেতা’ নামের কোনও পদ ছিলোনা। সংখ্যা গরিষ্ঠ দলের সদস্যরা একজনকে দলনেতা নির্বাচিত করতেন। তবে সেই পদের নাম ‘দলনেতা’ ছিলোনা। গ্রাম পঞ্চায়েত স্তরে সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের নেতাকে বলা হত প্রধান। পঞ্চায়েত সমিতি স্তরে সর্বোচ্চ পদের নাম সভাপতি,জেলা পরিষদ স্তরের সর্বোচ্চ পদের নাম সভাধিপতি।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এছাড়া  উপ-প্রধান, সহ-সভাপতি এবং সভাধিপতি থাকতেন। বিভিন্ন দফতরের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মাধ্যক্ষরাও থাকতেন। ২০১৩ সালের পঞ্চায়েত নির্বাচনের পরে প্রথম বার ‘দলনেতা’ পদটির নাম আলাদা করে শোনা যায়। তৃণমূল কংগ্রেস দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, জেলা পরিষদগুলিতে সভাধিপতি, সহ-সভাধিপতি পদের পাশাপাশি আলাদা করে একজন দলনেতাও থাকবেন। সেই মতোই রাজ্যের শাসক দল বোর্ড গঠনের আগেই সর্বত্র দলনেতা নির্বাচন সেরে ফেলছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!