এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > গোষ্ঠী কোন্দল বা দলবিরোধী কাজে যুক্ত থাকলে সঙ্গে সঙ্গে বহিষ্কার করা হবে সিদ্ধান্ত তৃণমূলের

গোষ্ঠী কোন্দল বা দলবিরোধী কাজে যুক্ত থাকলে সঙ্গে সঙ্গে বহিষ্কার করা হবে সিদ্ধান্ত তৃণমূলের

একসময় তৃণমূলের গড় বলেই পরিচিত ছিল উত্তরবঙ্গের দক্ষিণ দিনাজপুর জেলাটি। কিন্তু 2016 র বিধানসভা নির্বাচনে দলীয় কোন্দলের কারণে বেশ কয়েকটি আসন হারানোর পর থেকেই এই জেলায় ঘাসফুলের অস্তিত্ব সংকট দেখা দিতে শুরু করে। কিন্তু আর যে এই সমস্ত দলীয় কোন্দল দল বরদাস্ত করবে না – আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে গঙ্গারামপুরের রবীন্দ্রভবনে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে এক ঘরোয়া সভায় এমনটাই বার্তা দিয়ে গেলেন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা তৃনমূলের পর্যবেক্ষক তথা রাজ্যের পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব।

সূত্রের খবর, এদিনের এই সম্মেলনে উপস্থিত দক্ষিণ দিনাজপুর তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্র বলেন, “দলের যে সমস্ত ব্যাক্তি নেতাকর্মীদের উস্কানি বা সাহস যোগাচ্ছে তাদের কাউকেই আর রেয়াত করা হবে না। বিশৃঙ্খলার সাথে যুক্ত নেতাদের এবার বহিষ্কারের পথ বেছে নেওয়া হবে। গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে উস্কানিদাতাদের জন্য সাধারণ কর্মীরা নিজেদের মধ্যে গন্ডগোল করে মারা যাবে আর তা বরদাস্ত করা যাবে না।

মাথায় রাখবেন, তৃণমূল দলটা আছে বলেই আজ আমি দলীয় সভাপতি। না থাকলে আমার ডাকে একজনও আসবেন না। তাই কেউ যদি ভেবে থাকেন যে তাঁর একার কথায় কর্মীসমর্থকরা ছুটে আসবেন তাহলে তিনি ভুল করছেন।” প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত সোমবারই দলীয় কোন্দলের জেরে গঙ্গারামপুরের ঠেঙ্গাপাড়ায় দুই তৃণমূল কর্মী মৃত্যুতে তীব্র উত্তেজনা ছড়ায় দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিন সেই প্রসঙ্গে মুখ খুলে জেলা তৃণমূল সভাপতি বিপ্লব মিত্র বলেন, “কোনো দুর্ভাগ্যক্রমে এরকম একটা ঘটনা ঘটে গিয়েছে। কিন্তু ব্যক্তিগত কোন ব্যাপারে কেউ গন্ডগোল করলে তার দায় দল নেবে না।” অন্যদিকে দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাট কলেজে মূল সংগঠনের কোনো এক নেতা হস্তক্ষেপ করার জন্যই সেখানে সমস্যা হচ্ছে বলে অভিযোগ করে সেই নেতাকেও সতর্ক করে দেন জেলা তৃণমূল সভাপতি।

এরকম ভাবে চলতে থাকলে তাঁর বিরুদ্ধে দল ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবে বলেও জানিয়ে দেন বিপ্লব বাবু। এদিকে বক্তব্য রাখতে উঠে জেলা তৃণমূলের সভাপতি বিপ্লব মিত্রের বক্তব্যকে এক বাক্যে সমর্থন করেন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক তথা রাজ্যের পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব। তিনি বলেন, “যে দল বিরোধী কাজ করবে সে যত বড়ই হোক না কেন তাঁকে মেনে নেওয়া যাবে না।”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রে দলীয় টিকিট কিভাবে তা নিয়ে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় শাসকদলের তীব্র গোষ্ঠী কোন্দল শুরু হয়েছে। যার সুযোগ নিতে মাঠে নেমে পড়েছে বিরোধী দল বিজেপি। কিন্তু এই গোষ্ঠী কোন্দলকে থামিয়ে এই লোকসভা আসনটি যাতে নিজেদের দখলে রাখা যায় এবার তার জন্য সকল নেতাদের দলীয় কোন্দল রোধের জন্য কড়া হুঁশিয়ারি দিলেন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক তথা মন্ত্রী গৌতম দেব এবং জেলা তৃনমূলের সভাপতি বিপ্লব মিত্র।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!