এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > জরুরী অবস্থা নিয়ে ইন্দিরা গান্ধীকে কটাক্ষ করে বিতর্কে বিজেপি হেভিওয়েট নেতা

জরুরী অবস্থা নিয়ে ইন্দিরা গান্ধীকে কটাক্ষ করে বিতর্কে বিজেপি হেভিওয়েট নেতা

১৯৭৫ সালে দেশের জরুরী অবস্থা নিয়ে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীকে দুষলেন কেন্দ্রের গেররুয়া শিবিরের এক শীর্ষ নেতা। ২৫ শে জুন ছিলো জরুরী অবস্থার ৪৩ বছর পূর্তি হলো। এদিন ইন্দিরা গান্ধীর সাথে জার্মানির শাসক হিটলারের তুলনা টেনে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি সোস্যাল মিডীয়ায় সরব হলেন। তিনি ট্যুইট করে লিখলেন, “হিটলার এবং শ্রীমতি গান্ধী উভয়েই সংবিধানকে কখনো রদ করেননি।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

তারা গণতন্ত্রকে একনায়কতন্ত্রে পরিবর্তন করার জন্য প্রজাতন্ত্রের সংবিধানকে ব্যবহার করেছিলেন। হিটলার সংসদের বিরোধী দলের অধিকাংশ সদস্যকে গ্রেপ্তার করিয়ে ছিলেন এবং সংসদে সংখ্যালঘু সরকারের দুই-তৃতীয়াংশ নিয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠ সরকার গঠন করেছিলেন।” একই সাথে তিনি আরোও লিখলেন , “হিটলারের পাশাপাশি শ্রীমতি গান্ধীও ভারতকে রাজবংশীয় গণতন্ত্রে পরিণত করতে চেয়েছিলেন।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

যেখানে শুধুমাত্র গান্ধী পরিবারের রাজ থাকবে।” হিটলারের সাথে ইন্দিরা গান্ধীর তুলনা করার আগে অবশ্য কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রী ফেসবুকে জানালেন সেই সময় কংগ্রেস সরকার বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ মৌলিক অধিকার বাতিল করে দিয়েছিল, সংবাদমাধ্যমের ওপরে কিছু বাধ্যতামূলক নীতি নিয়ম আরোপ করা হয়েছিলো। এই সময়ে বিরোধী দলের বহু নেতা ও কর্মীকে জেল বন্দী করা হয়। ১৯৭৫ সালের ২৬ শে জুন জরুরী অবস্থার সময় বিক্ষোভ দেখানোর জন্য ‘‌প্রথম সত্যাগ্রহি’‌ যিনি কারাবাস করেছিলেন তিনি হলেন দেশের বর্তমান অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!