এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ভারতকে ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ ঘোষণা করতে মোদিকে সমর্থন করুন মমতা – মামলার শুনানিতে বিচারপতির মন্তব্যে চাঞ্চল্য

ভারতকে ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ ঘোষণা করতে মোদিকে সমর্থন করুন মমতা – মামলার শুনানিতে বিচারপতির মন্তব্যে চাঞ্চল্য

ভারতকে ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ ঘোষণা করা উচিত। স্থায়ী বাসিন্দার শংসাপত্র সম্পর্কিত এক মামলার শুনানিতে মেঘালয় হাইকোর্টের বিচারপতি এসআর সেন এমনটাই দাবি তুললেন বলে কলকাতার একটি সংবাদ মাধ্যমের খবর থেকে জানা যাচ্ছে।

ওই সংবাদমাধ্যমের খবর থেকে আরো জানা যাচ্ছে যে, মেঘালয় হাইকোর্টের বিচারপতি শুধু এই টুকুই নয় ,বিচারপতি সেন তাঁর রায়ে লিখেছেন, ‘১৯৪৭ সালে ধর্মের ভিত্তিতে দেশ ভাগ হয়েছিল। সেই মতো পাকিস্তান নিজেকে ইসলামিক রাষ্ট্র ঘোষণা করেছে। ভারতকেও হিন্দু রাষ্ট্র ঘোষণা করা উচিত।’

বিচারপতি তাঁর পর্যবেক্ষণে জানিয়েছেন, ‘ভারতকে ইসলামিক রাষ্ট্রে পরিণত করার চেষ্টা করা উচিত নয়। আমার মনে হয় এই পরিস্থিতির গুরুত্ব একমাত্র প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীজিই বুঝতে পারেন। ভারতের ইসলামিকরণ রুখতে তাঁর উপযুক্ত পদক্ষেপ করা উচিত। আমাদের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তাঁকে সমর্থন করা উচিত।’

সাথেই নাকি অভিন্ন দেওয়ানি বিধির পক্ষে সওয়াল করে বিচারপতি সেন বলেন, ‘ভারতের সমস্ত নাগরিকের জন্য একই আইন হওয়া উচিত। যে সেই আইন মানতে অস্বীকার করবে তার নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়া উচিত সরকারের।’ এমনটাই দাবি ওই সংবাদমাধ্যমের।

ওই সংবাদমাধ্যমের খবর থেকে আরো জানা যাচ্ছে যে এদিন বিচারপতি প্রতিবেশী ইসলামিক দেশগুলি থেকে আগত হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান উদ্বাস্তুদের নাগরিকত্ব দেওয়ার জন্য আইন আনতে অনুরোধ করেছেন। আর তিনি তাঁর দেওয়া রায়ে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন যে এব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, আইনমন্ত্রী ও সাংসদদের পদক্ষেপ করতে হবে।

প্রসঙ্গত, রাজ্য সরকার স্থায়ী বাসিন্দার শংসাপত্র দিতে অস্বীকার করায় আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন এক ব্যক্তি। সেই মামলায় এই রায় দিয়েছেন বিচারপতি সেন। এখন প্রধানমন্ত্রীki পদক্ষেপ নেন আর মুখ্যমন্ত্রীই বা কি করেন সেই দিকেই তাকিয়ে গোটা দেশ।

যদিও এই খবরের সত্যতা বা সূত্র সম্পর্কে ওই ওয়েব পোর্টালে কিছু লেখা নেই, প্রিয়বন্ধু বাংলার তরফেও এই খবরের সত্যতা যাচাই করে দেখা সম্ভব হয় নি। এই প্রবন্ধ সম্পূর্ণরূপে ওই পোর্টালে প্রকাশিত খবরের পরিপ্রেক্ষিতে করা, কোনোভাবেই রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নয় বা কোনো ব্যক্তি বা দলের সম্মানহানির উদ্দেশ্যে রচিত নয়।

Top
error: Content is protected !!