এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > আয়কর দপ্তরের তলব কলকাতার নামকরা দুর্গাপুজোর 40 টি পুজো কমিটিকে

আয়কর দপ্তরের তলব কলকাতার নামকরা দুর্গাপুজোর 40 টি পুজো কমিটিকে

এতদিন নেতা মন্ত্রীদের আয়কর দপ্তরে হাজিরা দেওয়ার দেওয়ার কথা শুনলেই তোলপাড় হত রাজনৈতিক মহল। কিন্তু এবারে আর কোনো নেতা মন্ত্রী নয়, এবার খোদ কলকাতার চল্লিশটি পুজো কমিটিকে আগামী সোম ও মঙ্গলবার দেখা করবার জন্য নোটিশ দিল আয়কর দপ্তর।

কিন্তু হঠাৎ কলকাতার এই নামীদামী চল্লিশটি পুজো কমিটিকে তলব করল কেন আয়কর বিভাগ, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই জোর জল্পনা শুরু হয়েছে। অনেকেই মনে করছেন, কলকাতার পুজো কমিটি গুলোর মধ্যে হাজার হাজার কোটি টাকায় হাতবদল হচ্ছে।

সূত্রের খবর, আয়কর দপ্তর খোঁজখবর নিয়ে দেখেছে যে, গত 2018 সালে মোট 5 হাজার কোটি টাকা খরচ হয়েছে। যার মধ্যে দু’একটি বাদে কেউই টিডিএস কাটেনি। আর সেই কারণেই ট্যাক্স সংক্রান্ত কাগজপত্র এই নামিদামি পুজো কমিটিগুলোর ঠিক আছে কি না সেই ব্যাপারেই কলকাতা শহরের চল্লিশটি পুজো কমিটিকে ডাকছে আয়কর দপ্তর বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

 

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

দেখা গেছে, 2017-18 সালে সারা ভারতে প্রত্যক্ষ কর সংগ্রহের পরিমাণ যেখানে 13.5 শতাংশ, সেখানে এই রাজ্যে তা মোটে 7.5 শতাংশ। আর সেইমত যদি পুজোয় মোট পাঁচ হাজার কোটি টাকা খরচ হয় তাহলে আয়কর দপ্তরের পাওনা করের পরিমাণ দাঁড়ায় মোট 100 কোটি টাকায়।

কিন্তু সেইখানেয় ঘাটতি থাকায় এবার পুজো কমিটি উদ্যোক্তাদের ডাকতে চলেছে আয়কর বিভাগ। তবে কলকাতার এই 40 টি পুজো কমিটিকে আয়কর বিভাগের পক্ষ থেকে ডাক দেওয়ার ব্যাপারটিতে অনেকেই রাজনীতির বড়সড় গন্ধ পেতে চলেছেন।

একাংশের মতে, কলকাতার বেশিরভাগই পুজো কমিটিগুলোর মাথায় রয়েছেন রাজ্যের শাসকদলের নেতা-মন্ত্রীরা। তাই সেই কমিটিগুলোকে ডেকে এবার কি তাহলে রাজ্যের শাসকদলের ওপরই পরোক্ষভাবে চাপ সৃষ্টি করতে চাইছে আয়কর দপ্তর! জল্পনা তুঙ্গে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!