এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ইমাম ভাতার পাল্টা এবার পুরোহিত ভাতার দাবিতে হেভিওয়েট তৃণমূল সাংসদের সামনেই আন্দোলন

ইমাম ভাতার পাল্টা এবার পুরোহিত ভাতার দাবিতে হেভিওয়েট তৃণমূল সাংসদের সামনেই আন্দোলন

ক্ষমতায় আসার পরই তৃণমূল মুসলিম সমাজের ইমাম সাহেবদের জন্য ইমাম ভাতার প্রচলন করেছিলেন। কিন্তু শুধুমাত্র একটি বিশেষ সম্প্রদায়কে সন্তুষ্ট করলেও হিন্দুদের ব্রাহ্মণ সম্প্রদায়ের পুরোহিতদের জন্য কোনো ভাতার ব্যবস্থা করা হয়নি বলে মাঝেমধ্যেই সরব হতে দেখা যেত বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে। তবে যতদিন এগিয়েছে ততই সেই পুরোহিতদের ভাতার ব্যাপারে দাবিদাওয়া জোরালো হয়েছে।

সূত্রের খবর, রবিবার শ্রীরামপুর পৌরহিত্য কল্যাণ সমিতি নামে একটি সংগঠনের উদ্যোগে পুরোহিতদের নিয়ে সম্মেলন হল। যেখানে বিপুল সংখ্যক পুরোহিত এই সম্মেলনকে কেন্দ্র করে একত্রিত হয়েছিলেন। মূলত, ইমামদের মতো ভাতা ও পুরোহিতদের প্রশিক্ষণ সহ একাধিক দাবি নিয়ে পুরোহিতদের ওই সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সম্মেলনের আগে এদিন শ্রীরামপুরে একটি মিছিল করেন পুরোহিতরা।

যেখানে এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। আর কল্যান বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতির পরেই এই সম্মেলনের উদ্দেশ্য নিয়ে প্রশ্ন তুলতে দেখা গেছে বিজেপিকে। এই সম্মেলন আয়োজনের পেছনে হিন্দু ভোটব্যাঙ্কের রাজনীতির অভিযোগ তুলে সরব হয়েছে তারা। তবে গেরুয়া শিবির এই ব্যাপারে প্রশ্ন তুললেও সম্মেলনের উদ্যোক্তারা গোটা বিষয়টির পেছনে রাজনীতির উপস্থিতি নেই বলে দাবি করতে শুরু করেছেন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

আয়োজকদের দাবি, বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে রাজ্য সরকার ধারাবাহিকভাবে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ইমাম, মোয়াজ্জিমদের ভাতা দিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু আগেও পুরোহিতদের ভাতার প্রসঙ্গ উঠলেও তা কার্যকরী করা হয়নি। পাশাপাশি, সংগঠকরা সরকারি স্বাস্থ্যবিমার সুবিধা, প্রশিক্ষণ সহ একাধিক দাবির বিষয় সম্মেলনে উপস্থিত সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে জানিয়েছে। তাদের আশা, তৃণমূল সাংসদকে যখন একথা জানানো হয়েছে, তখন তিনি নিশ্চয়ই তা মুখ্যমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরবেন।

তবে এই সম্মেলনের প্রসঙ্গে এদিন বিজেপির ওবিসি সেলের রাজ্য সভাপতি স্বপন পাল বলেন, “রাজ্য সরকার দীর্ঘদিন সংখ্যালঘু তোষণ করেছে। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে শাসকদল এখন হিন্দুদের ভাবাবেগকে ভোটের কাজে লাগাতে চাইছে। পুরোহিত সম্মেলনের আড়ালে সেই উদ্দেশ্যই সাধন করার চেষ্টা হচ্ছে।”

কিন্তু বিজেপির তরফে যতই এটা তৃণমূলের সংসর্গে তৈরি বলে দাবি করা হোক না কেন, একটি আরাজনৈতিক সংগঠনের ছাতার তলেই পুরোহিতরা নিজেদের দাবিদাওয়া নিয়ে একত্রিত হয়েছেন বলে দাবি উদ্যোক্তাদের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!