এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > স্বামী তৃণমূল আর স্ত্রী বিজেপি প্রার্থী – আজব লড়াই শুভেন্দু-গড়ে

স্বামী তৃণমূল আর স্ত্রী বিজেপি প্রার্থী – আজব লড়াই শুভেন্দু-গড়ে

এবার পঞ্চায়েত ভোটের ময়দানে মুখোমুখি দাঁড়ালেন এক দম্পতি। স্বামী ডাঃ পার্থপ্রতিম দাস এলাকার ৫১ নম্বর জেলা পরিষদে তৃণমূলের প্রার্থী হয়ে দাঁড়িয়েছেন এবং তাঁর স্ত্রী লিপিকা দাস হয়েছেন বিজেপি প্রার্থী। তাই নিয়ে পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরি ২ ব্লকের রাজনৈতিক মহলে জল্পনা তুঙ্গে উঠেছে। তবে কেন এমন বেনজির রাজনৈতিক লড়াই-এ অংশ নিলেন তাঁরা? তাই নিয়ে প্রশ্ন উঠলে দাম্পত্য কলহ অস্বীকার করেন পার্থবাবু। তিনি কিন্তু এলাকায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে ঘাসফুল শিবিরের উন্নয়নের কথাই প্রচার করলেন। অন্যদিক স্ত্রী লিপিকা দেবী শোনালেন অন্য কথা। তৃণমূলের উন্নয়নের কথা তাঁর কাছে বলা হলে তিনি জানান এলাকার সার্বিক উন্নয়ন এখনো বিশ বাও জলে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

রাজনৈতিক সূত্রের খবর থেকে জানা গেছে, খেজুরি ২ ব্লকের রামচকের মানুষ পার্থপ্রতীমবাবুর। একই গ্রামে শ্বশুরবাড়িও। গত ৪ বছর হল পারিবারিক ঝামেলার কারণে দম্পতির ভিতর সম্পর্ক সুস্থ নেই। বিবাহ বিচ্ছেদের প্রক্রিয়াও নাকি চলছে। এই কারণেই দুজন দুজনের মুখ দেখেন না। স্ত্রী শ্বশুরবাড়ি থাকলেও চন্ডিপুরে থাকতেন পার্থবাবু। এছাড়া আরো জানা গেছে, গত পঞ্চায়েত ভোটে খেজুরি ১ ব্লক এলাকা থেকে জিতে পার্থবাবু জেলা পরিষদের স্বাস্থ্য কর্মাধ্যক্ষ হয়েছিলেন।তাই ঘাসফুল শিবির তাকে আবার প্রার্থী করেছে একই ব্লকে। সেই ব্লকেরই পাশের আসন থেকে বিজেপি প্রার্থী হয়ে লড়বেন তাঁর স্ত্রী লিপিকা দাস। এ নিয়ে যে অস্বস্তিতেও পড়েছেন তিনি তা স্পষ্ট তাঁরই বক্তব্যে, ”আমি ১৯৯৮ সাল থেকে তৃণমূল করছি। কিন্তু আমার স্ত্রী-র বাপের বাড়ি লোকেরা বরাবরের জন্য বামপন্থী। তাই বামপন্থী আদর্শে বড় হয়েছেন উনি। আমার ব্যর্থতা আমি ওঁনাকে তৃণমূলে আনতে পারিনি। খেজুরিতে বামেরা এখন সব বিজেপি-তে নাম লিখিয়েছেন। আমার স্ত্রী-ও সেই পথ অনুসরণ করেছেন। তবে আমি আমার পথেই অবিচল।” স্বামীর মন্তব্যে নিয়ে নতুন বিজেপি প্রার্থী লিপিকা দাসকে প্রশ্ন করা হলে তিনিও পাল্টা উওরে জানান যে এলাকায় রাজনৈতিক পরিবর্তন আনতেই নাকি তিনি তিনি বিজেপির সঙ্গ দিয়েছেন। তাঁর বিশ্বাস এলাকায় উন্নয়ন বিজেপির হাত ধরেই আসবে। যদি অবাধ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হয় তবে বিজেপি এবার জিতবেই। মানুষের প্রতি তিনি আস্থা রেখেছেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!