এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > পেঁয়াজের দাম থেকে রেহাই মিলতে অভিনব উদ্যোগ রাজ্যের, জেনে নিন কোথায়, কিভাবে পাবেন সস্তায়

পেঁয়াজের দাম থেকে রেহাই মিলতে অভিনব উদ্যোগ রাজ্যের, জেনে নিন কোথায়, কিভাবে পাবেন সস্তায়

পেঁয়াজের দামের ঝাঁঝে নাকের জলে চোখের জলে অবস্থা গোটা দেশের। 70-80 টাকা থেকে ছাড়িয়ে এখন পেঁয়াজের দাম পশ্চিমবঙ্গে 100 টাকা কেজি দর ছুঁয়েছে বাজার। চলতি বছরে দেশের বিভিন্ন জায়গায় পেঁয়াজের দাম লাগাতার হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর পেঁয়াজের দাম অনেকটাই বেড়েছে বলেই মনে করা হচ্ছে। আর তাতেই সমস্যায় পড়েছেন সাধারণ মানুষ। দামী হয়ে যাওয়া নিত্যপ্রয়োজনীয় পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ায় নাস্তানাবুদ হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। সাধারণ মানুষের কথা ভেবে পেঁয়াজের দাম কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। আর তা করতে অভিনব পদ্ধতি অবলম্বন করেছে সরকার এবার।

এবার থেকে রেশন দোকানে মিলবে পিঁয়াজ বলে জানিয়েছে রাজ্য সরকার। মধ্যবিত্তের হেঁসেলে পিঁয়াজের ভূমিকা বৃহত্তর। আর সেই বৃহত্তর ভূমিকা নিতে বাধা দিচ্ছে পেঁয়াজের আগুন দর-বাজার। এবার সেই বাজারদর নিয়ন্ত্রণ করার জন্য রাজ্য খাদ্য দপ্তর অভিনব পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। এবার রেশন দোকানের মাধ্যমে পেঁয়াজ বিক্রি করবে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। আগামী সপ্তাহে আপাতত উত্তর ও দক্ষিণ কলকাতার দোকানগুলিতে অন্যান্য দ্রব্যের সাথে পিঁয়াজ বিক্রি শুরু হবে। রাজ্যের সর্বত্র এই সুবিধা ক্রমে পাওয়া যাবে বলে জানা গেছে।

কিন্তু প্রশ্ন উঠেছে, রেশন দোকান শুধুমাত্র নিম্ন বর্গীয় মানুষরাই ব্যবহার করে। শহরের নিম্নবিত্ত বা মধ্যবিত্তরা কেউই রেশন দোকানে যান না। তাহলে তাঁরা কতটা উপকৃত হবেন? বিষয়টি মেনে নিয়ে আধিকারিকরা এই প্রসঙ্গে বলেছেন, যখনই রেশন দোকানে কম দামে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু হবে, ফলে কমসংখ্যক কিছু লোক ন্যায্যমূল্যে পেঁয়াজ কিনতে পারবে। এর ফলে বাজার মূল্য কিছুটা হলেও কমবে বলে মনে করা হচ্ছে। পরে জেলায় রেশন দোকান থেকে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু হলে চাহিদা যোগানের ফারাক পূরণ করতে তা বাধ্য। তখন নিয়ম অনুযায়ী অর্থনীতির রুলস ফলো করে পিঁয়াজ মূল্যের আকাশছোঁয়া দাম কিছুটা কমবে বলে মনে করা হচ্ছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

গত কয়েকদিন ধরেই বাজারে পেঁয়াজের দাম 100 টাকা ছাড়িয়ে গেছে। সেই দামকে ধরাছোঁয়ার মধ্যে আনতে সম্প্রতি রাজ্য সরকারের সুফল বাংলা স্টল থেকে 59 টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু হয়েছে। এবার সাধারণের নাগালে পেঁয়াজকে নিয়ে আসতে রেশন দোকান থেকে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু হতে চলেছে। সরকারি বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হয়েছে, আগামী সপ্তাহ থেকে উত্তর ও দক্ষিণ কলকাতার প্রায় 900 দোকান থেকে সুবিধাজনক দামে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু হবে। খাদ্য দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, যতদিন না পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক হচ্ছে, ততদিন পর্যন্ত রেশন দোকান থেকেই পিঁয়াজ বিক্রি হবে। বরং কলকাতা থেকে শুরু হয়ে রাজ্যের সব রেশন দোকানে যাতে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু হয় সেদিকে নজর দেবে গণবণ্টন দপ্তর। এ প্রসঙ্গে গণবণ্টন দপ্তরের প্রধান সচিব মনোজ আগরওয়াল বলেছেন, ‘প্রথম দফায় উত্তর ও দক্ষিণ কলকাতায় 934 টি রেশন দোকান থেকে সুবিধাজনক দামে পেঁয়াজ বিক্রি হবে।’

বিগত কয়েকদিন ধরে রান্নাঘরে নিত্যপ্রয়োজনীয় পেঁয়াজের দাম ঊর্ধ্বমুখী হবার ফলে সাধারণ মানুষের বিপত্তি বেড়েছে। অবশেষে পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণে বিশেষ পদক্ষেপ নিতে চলেছে রাজ্য সরকার। লাগাতার হারে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির অন্যতম কারণ হিসেবে ধরা হয়েছে মহারাষ্ট্র এবং মধ্য প্রদেশের বন্যা পরিস্থিতি। মহারাষ্ট্রকে পেঁয়াজ চাষের রাজ্য হিসেবে ধরা হয়। বন্যার ফলে সেখানে পেঁয়াজ চাষ মার খেয়েছে। আর তার ফলেই পেঁয়াজের দামে ঊর্ধ্বগতি। উৎসবের মরসুম থেকেই এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে যে খাবারের দাম বাড়তে শুরু করেছে। সর্বস্তরে পরিস্থিতি সামাল দিতে রাজ্য সরকার বর্তমান পদক্ষেপ নিয়েছে বলে জানা গেছে সূত্র মারফত। আপাতত রাজ্য সরকারের তরফে পেঁয়াজের দাম কমানোর এই প্রচেষ্টার ফলে সাধারণ মধ্যবিত্ত ও নিম্ন মধ্যবিত্তের কোনো সুবিধা হলো কিনা সেদিকে নজর রাখবে ওয়াকিবহাল মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!