এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > অমিত শাহের সভামঞ্চের খরচ শুনলে চোখ কপালে উঠবে, বাড়ছে গুঞ্জন

অমিত শাহের সভামঞ্চের খরচ শুনলে চোখ কপালে উঠবে, বাড়ছে গুঞ্জন



সম্প্রতি দুদিনের ঝটিকা বঙ্গ-সফর সেরে গেলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। তাঁর এই সফর ঘিরে গেরুয়া শিবিরের নেতা-কর্মী-সমর্থকদের উৎসাহের অন্ত ছিল না। আগামী লোকসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে একাধিক গুরুত্ত্বপূর্ন দলীয় বৈঠক করলেও তাঁর এই রাজ্য সফরে সবথেকে গুরুত্ত্বপূর্ন স্থান পায় পুরুলিয়ায় তাঁর জনসভা। একে পঞ্চায়েত নির্বাচনে পুরুলিয়া জুড়ে গেরুয়া ঝড়ের স্পষ্ট ইঙ্গিত, তার উপরে মাত্র তিনদিনের মধ্যে দুই দলীয় তরুণ নেতার রহস্যজনক মৃত্যু – সবমিলিয়ে পুরুলিয়ায় তাঁর যাওয়া ও সভা করা প্রায় অবধারিত হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু রাজ্য সফর কালে পুরুলিয়ার শিমুলিয়ায় সেই জনসভায় শুধুমাত্র প্যান্ডেল তৈরীর জন্যে খরচের পরিমান শুনলে অবাক না হয়ে উপায় নেই!

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সূত্রের খবর, প্রায় ৮৬ লক্ষ টাকা খরচ করে ঝাড়খণ্ডের রাঁচি শহরের এক নামী ডেকরেটরকে দিয়ে এই প্যান্ডেল নির্মান করা হয়েছিলো। তিনটি ক্রেনের সাহায্যে সম্পূর্ণ লোহার কাঠামো আর সর্বাধুনিক ত্রিপল দিয়ে প্রায় গোটা শিমুলিয়া ময়দান ছেয়ে ফেলা হয়েছিল। ডেকরেটর সংস্থার এক কর্মচারীর থেকে পাওয়া তথ্য অনুসারে জানা গেলো বসার চেয়ার, এলইডি টিভি, আন্তঃরাজ্য পরিবহণ খরচ সহ সবমিলিয়ে প্রায় এক কোটি টাকার বেশি খরচ হয়েছে। অমিত শাহ’র এই এক’কোটি টাকার সভাকে ঘিরে ইতিমধ্যে দলের অন্দরে তুমুল চর্চা শুরু হয়ে গেছে। যদিও দলের রাজ্য কমিটির এক নেতার দাবি, প্যান্ডেলের দায়িত্ব রাজ্যের ছিল না। কেন্দ্রের পক্ষ থেকে গোটা বিষয়টি পরিচালনা করা হয়েছে। যদিও পুরুলিয়া জেলা নেতৃত্ব যে মঞ্চে অমিত শাহ ছিলেন এবং তার পাশের মঞ্চ তৈরির দায়িত্বে ছিলেন।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!