এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কোন পথে বাংলা দখল? ফাঁস হল লোকসভার দিকে তাকিয়ে গেরুয়া শিবিরের নীল-নকশা

কোন পথে বাংলা দখল? ফাঁস হল লোকসভার দিকে তাকিয়ে গেরুয়া শিবিরের নীল-নকশা

২০১৯ সালে কেন্দ্রে পুনরায় ক্ষমতায় আসতে এবার গেরুয়া শিবির পূর্ব ভারত ও উত্তর-পূর্ব ভারতকে তাদের নিশানায় রেখেছে অনেকদিন ধরেই। আগেই সংবাদে প্রকাশিত বাংলার ৪২ টি আসনের মধ্যে অন্তত ২২ টি আসন জিততে মরিয়া গেরুয়া শিবির। কিন্তু সাম্প্রতিক পঞ্চায়েত ও বিভিন্ন উপনির্বাচনে বাংলায় বিজেপির অনুকূলে যে ‘হাওয়া’ লক্ষ্য করা গেছে তাতে সম্প্রতি বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্ত্ব বাংলায় নিজেদের ‘টার্গেট’ বাড়িয়ে আপাতত ৩২ টি আসনকে পাখির চোখ করছে বলে সূত্রের খবর। কিন্তু কোন পথে হবে সেই অসাধ্যসাধন? কেননা বাংলায় প্রতিপক্ষের নাম তৃণমূল কংগ্রেস আর তৃণমূলনেত্রী বাংলায় ৪২ টি আসনই নিজে জেতার ব্যাপারে আশাবাদী হওয়ার পাশাপাশি বিজেপিকেই কেন্দ্র থেকে সরিয়ে দিতে মরিয়া। তাই বাংলায় লড়াই যে সহজ হবে না সেকথা সহজেই অনুমেয়, বিশেষ করে ৭ বছর ক্ষমতায় থাকার পরেও প্রতিটি নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল যেখানে লাফিয়ে লাফিয়ে নিজেদের ভোট বাড়িয়ে নিচ্ছে।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

কিন্তু গেরুয়া শিবির নিশ্চিন্ত, নির্দিষ্ট পন্থা মেনে চললেই এই অসাধ্যসাধন সম্ভব। সম্প্রতি বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক তথা পশ্চিমবঙ্গের জন্য দলের ভারপ্রাপ্ত নেতা সুরেশ পূজারী জানিয়েছেন, বাংলায় দলের সাংগঠনিক হাল নিয়ে প্রতি তিন মাসে একবার করে রিভিউ মিটিং করবেন স্বয়ং বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। সেই রিভিউ মিটিংয়ের জন্য যাবতীয় তথ্য সংগ্রহের দায়িত্ত্বে থাকবেন বাংলায় দায়িত্বপ্রাপ্ত দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব, আর এই বৈঠকের উপর নির্ভর করেই বদলে যেতে পারে বঙ্গ-বিজয়ের জন্য গেরুয়া শিবিরের রণকৌশল। স্বয়ং সর্বভারতীয় সভাপতি এইভাবে এত ঘনঘন সাংগঠনিক ‘রিভিউ’ মিটিং করা যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্নের বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। এই বৈঠক যদি অমিত শাহ সময় পান তবে বাংলার বুকে হতে পারে, নাহলে পুরো টীম-বাংলাকে দিল্লিতে উড়িয়ে নিয়ে গিয়ে হতে পারে বা অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে ‘মাল্টিপল-লোকেশন’ থেকেও হতে পারে। কিন্তু বাংলার বুকে পরিবর্তনের ‘গন্ধ’ পেয়ে যাওয়া অমিত শাহ নাকি বঙ্গ-সফর এবার ঘনঘনই করবেন বলে গেরুয়া শিবিরের খবর, এমনকি খুব শীঘ্রই স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকেও বাংলার বুকে হাজির করতে চান অমিত শাহ। সবমিলিয়ে বাংলার মাটিতে কঠিন লড়াইটা বেশ অঙ্ক কোষে মন দিয়েই লড়তে চান বিজেপির শীর্ষনেতৃত্ত্ব বলে দাবি বঙ্গ বিজেপির নেতাদের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!