এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > উলটপুরাণ! তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে সিপিএমে যোগ দিলেন তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা – জানুন বিস্তারিত

উলটপুরাণ! তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে সিপিএমে যোগ দিলেন তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা – জানুন বিস্তারিত

রাজ্য-রাজনীতিতে কি এবার উলোটপুরাণের হওয়া বইতে শুরু করল? মুকুল রায় তৃণমূল কংগ্রেস ছাড়ার আগে পর্যন্ত – বিভিন্ন দল ছেড়ে হেভিওয়েট নেতা-নেত্রীরা শাসকদলে নাম লেখাচ্ছেন এটাই ছিল স্বাভাবিক ঘটনা। এরপরে, তিনি বিজেপিতে পা রাখতেই – এই দলবদলের খেলায় আরেকটি ‘ডেস্টিনেশন’ হতে শুরু করল গেরুয়া শিবির।

আর, বিশেষ করে পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর – রাজ্য-রাজনীতিতে যেন কংগ্রেস বা বামফ্রন্ট বলে কোন দল আছে বলেই এই ‘দলবদলু’ নেতা নেত্রীরা মনেই করছিলেন না। দলবদলের খবর মানেই হয় তৃণমূলে না হয় বিজেপিতে। কিন্তু, সেই ‘ট্র্যাডিশনে’ কি এবার ‘পরিবর্তনের’ হওয়া লাগল? প্রশ্নটা উঠছে কারণ – সাম্প্রতিককালের কিছু ঘটনা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

কিছুদিন আগেই বামফ্রন্টের হেভিওয়েট নেতা আব্দুস সাত্তার যোগ দিলেন কংগ্রেসে। আর এবার তো সবাইকে চমকে দিয়ে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে সিপিএমে যোগ দিলেন এক হেভিওয়েট নেতা। সূত্রের খবর, মালদার হরিশ্চন্দ্রপুরে তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ডঃ একরামূল হক নিজের অনুগামীদের নিয়ে যোগদান করলেন সিপিএমে।

যদিও, এই যোগদানের পরিপ্রেক্ষিতে সিপিএম সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে একরামূল সাহেব ও তাঁর অনুগামীরা দলের সদস্য নন বরং সমর্থক হিসাবে যোগদান করেছেন। তবে, তাঁরা অবশ্যই দলের বিভিন্ন বামপন্থী আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত থাকবেন। আর দলে থেকে বামপন্থী আন্দোলনকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারলে পরবর্তীকালে অবশ্যই মিলতে পারে সদস্যপদ। সব মিলিয়ে – তৃণমূল-বিজেপির এই ভরা বাজারে – এইসব ‘উলটপূরাণের’ দলবদল কিন্তু চমকে দিচ্ছে রাজ্য রাজনীতিকে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!